ট্রেনের অপেক্ষায় রাস্তায় রাত কাটা‌চ্ছেন যা‌ত্রীরা

আহসান হা‌বিব সবুজ
২৬ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০২:২৬

ট্রেনের অপেক্ষায় রাস্তায় রাত কাটা‌চ্ছেন যা‌ত্রীরা

ক‌রোনার কার‌ণে ট্রেনের সি‌ডিউল প‌রিবর্তন করা হ‌য়ে‌ছে। রাত ১২ টা থে‌কে ভোর ৪ টার আগে কোনো ট্রেন ঢাকার কমলাপুর স্টেশন থে‌কে ছে‌ড়ে যায় না । কিন্তু সকা‌লের ট্রেন ধরার জন‌্য দূর-দূরান্ত থে‌কে মানুষ রা‌তেই কমলাপুর রেলও‌য়ে স্টেশ‌নে এসেছেন। ভেত‌রে ঢুক‌তে না দেওয়ায় স্টেশ‌নের বাইরেই পত্রিকা বি‌ছি‌য়ে শু‌য়ে ও ব‌সে আছেন তারা।

বুধবার (২৫ ন‌ভেম্বর) দিবাগত রাত একটায় ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ঘুরে দেখা গেছে, প্ল্যাটফর্মের ভেতরে কোনো যা‌ত্রী নাই। প্ল্যাটফর্মের বাইরে এদিক-ওদিক মানুষ শুয়ে-ব‌সে আছেন ভোর হওয়ার আশায়। ভোর হলেই ট্রেনে করে বাড়ি চলে যাবেন।

‌স্টেশ‌নের বা‌ইরে রাস্তায় শু‌য়ে ও ব‌সে থাকা যা‌ত্রীদের সা‌থে কথা ব‌লে জানা যায়, কেউ কেউ  ট্রেন মিস ক‌রে‌ছেন। আবার ভো‌রে ট্রেন ধর‌তে পার‌বেন না ব‌লে সন্ধ‌্যায় স্টেশ‌নে এসেছেন যা‌তে ট্রেন মিস না হয় তাদের।

স্টেশনের বাইরে পত্রিকা বিছিয়ে শুয়ে আছেন আরিফুল ইসলাম। তিনি মুন্সীগঞ্জের একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেন। তার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ দুর্গাপুরে। তিনি ব্রেকিংনিউজকে বলেন, বারোটায় একটা ট্রেন ছিল। এসে দেখি ট্রেন চলে গেছে। তাই এখানেই পত্রিকা বিছিয়ে শুয়ে আছি। সকালের ট্রেনে বাড়ি চলে যাব। আশেপাশে কোথাও থাকার জায়গা নাই। তাই বাধ্য হয়ে এখানেই থাকতে হচ্ছে।

ট্রেনের আরেক যাত্রী সাইদুর রহমান তিনি তার পরিবার নিয়ে গ্রামের বাড়ি যাবেন। তার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ। তিনি ব্রেকিংনিউজকে বলেন, রাত দশটায় একটা ট্রেন ছিল সেই  ট্রেন ধরে বাড়ি যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ট্রেন মিস করেছি। তাই সবাইকে নিয়ে এখানে শুয়ে আছি। সকালের ট্রেনে বাড়ি যাবো।

তিনি বলেন, আমি নারায়ণগঞ্জে থাকি। এখন কমলাপুর থেকে নারায়ণগঞ্জ গিয়ে আবার সকালে এসে ট্রেন ধরতে পারবো না তারপ‌রে সা‌থে প‌রিবার আছে । তাই বাধ্য হয়ে এখানে থাকতে হচ্ছে।

জাহান মিয়া (৬৫) পত্রিকা বিছিয়ে স্টেশনের বাইরে বসে আছেন। তিনি ব্রেকিংনিউজকে বলেন, আমার বাড়ি দেওয়ানগঞ্জে ডাক্তার দেখানোর জন্য ঢাকায় এসেছিলাম। কিন্তু ডাক্তারের সাক্ষাত পাই নাই। তাই বাড়ি চলে যাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, ঢাকা শহরে আত্মীয়স্বজন কেউ নাই। তাই স্টেশন এর বাইরে বসে আছি। স্টেশনের ভেতরে তো ঢুকতে দিবে না। সকাল হলে টিকিট কেটে বাড়ি চলে যাব।

রাতের খাবার খেয়েছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওষুধ ছাড়া আর কিছুই খাইনি। আর্থিক একটু সমস্যায় আছি তাই।

স্টেশনের নিরাপত্তাকর্মী রুবেল আহমেদ ব্রেকিংনিউজকে বলেন, রাত বারোটার পরে স্টেশনের ভেতরে প্রবেশ নিষেধ। রাত বারোটার পরে কোনো ট্রেন ছাড়ে না। আবার ভোর চারটার পরে সবাই ঢুকতে পারবেন।

তি‌নি ব‌লেন, এম‌নি‌তে ক‌রোনার সমস‌্যা তারপ‌রে এই মানুষগু‌লো যারা ভেত‌রে থা‌কেন, তারা ক‌য়েল ধ‌রি‌য়ে ঘুমান । সেই ক‌য়ে‌লের আগু‌নে কিছু দিন আগে দুটি দোকান পু‌ড়ে গে‌ছে। তাই আর কাউ‌কেই রাত ১২ টার প‌রে ভেত‌রে ঢুক‌তে দেওয়া হয় না।

অসুস্থ মানুষ থাকলে সে ক্ষেত্রে কি করেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, বেশি অসুস্থ থাকলে। সে ক্ষেত্রে আমরা কোনো একটা ব্যবস্থা করি। কিন্তু উপর মহল থেকে আমাদের যে নির্দেশ দেয়া হয়েছে আমরা সেই মতোই কাজ করি।

ব্রেকিংনিউজ/এএইচএস/এমজি

breakingnews.com.bd
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি