বসন্তে নেই উৎসব

মো. রাকিবুল হাসান, গণ বিশ্ববিদ্যালয়
৫ এপ্রিল ২০২১, সোমবার
প্রকাশিত: ০১:৫৩

বসন্তে নেই উৎসব

৩১ একর জুড়ে সবুজের সমাহার। বাহারি রঙের ফুল আর পাখির কলকাকলিতে মাতোয়ারা ক্যাম্পাস। ছড়িয়ে আছে টুকরো টুকরো ফুলের বাগান। দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসা পাখিরা এই ক্যাম্পাসকে নিজের করে নিয়েছে৷ সারাক্ষণ তাদের কিচিরমিচির শব্দ মনকাড়ে সবার৷

এমনই এক ক্যাম্পাস সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয় (গবি)। যাকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে বসতি ও নানান কর্মসংস্থান। ঢাকা থেকে এই ক্যাম্পাসের দূরত্ব ৩৮ কিলোমিটার। ঋতু বদলে এখানেও এসেছে মধুর বসন্ত। প্রকৃতির সবটুকু রঙে সেজেছে প্রাণের ক্যাম্পাস।

পুরনো পাতা বদলে বসন্তের নতুন রুপে সেজেছে গাছগুলোও। খেলার মাঠের একপ্রান্তে ফুটেছে কাঁশফুল। বসন্তের বাতাসে দুলছে এ ফুল। একাডেমিক ভবনের আয়তকার উদ্যানে সোভা ছড়াচ্ছে ক্রিসমাস ট্রি। ক্যাম্পাসের করিডর থেকে যতদূর চোখ যায়, দেখা মেলে সবুজ অরণ্য আর নীল আকাশ।

গবি শিক্ষার্থীদের প্রাণকেন্দ্র এর বাদাম তলা। এখন মানুষের পাদচারণ কম থাকায়, সুযোগ পেলেই পাখিরা নেমে আসছে মাটিতে। কাঠ বাদামের গাছগুলো ছড়িয়ে দিচ্ছে তার শাখা-প্রশাখা। ক্যাম্পাস বন্ধে ভেলপুরি, ফুসকা ও ঝালমুড়ির ভ্রাম্যমাণ দোকানীরা না এলেও ট্রান্সপোর্ট চত্বরে পাওয়া যাচ্ছে নানা পদের পিঠা। দিনভর অনেকেই এখানে আসেন শুটকি ভর্তা দিয়ে চিতল পিঠা খেতে।

ট্রান্সপোর্ট চত্বরের নিম গাছ নয়া কুড়িতে ভরে উঠেছে। সজনা গাছে নেই পাতা, তবে সজনা সবজিতে পূর্ণ তার ডালগুলো। ক্যাম্পাসের কাঠাল ও আম গাছে মুকুল এসেছে৷ লন টেনিসের পাশ জুড়ে তৃণ উদ্ভিদ ও গাছে ভরে গেছে৷ আম তলা, মসজিদ ও সবুজ ছাউনি ক্যান্টিনের ধার ঘেঁষে ফুটেছে নানান ধরনের জঙ্গলী ফুল কিংবা ভাটফুল। এ ফুলের চারপাশে রং-বেরঙের প্রজাতি উড়ছে দল বেঁধে। এখানকার সারি সারি কলা ও সুপারি গাছ মন কাড়বে অনেকের। সতেজতার পরিপূর্ণ হয়ে—প্রকৃতি তার আপন মনে বিচরণ করছে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে।

হোয়াইট হাউসের ফটকে সুবাস ছড়াচ্ছে গোলাপ ও গাঁদা ফুল৷ ক্যাম্পাসের ছাউনিগুলোতে লাল-সবুজের পতাকা সোভা পেয়েছে। রোদের প্রখরতায় এখানকার বৃক্ষগুলো শিক্ষার্থীদের এনে দেয় এক টুকরো শীতল অনুভূতি। ঋতুর সাথে তাল মিলিয়ে ক্যাম্পাসে আসে নতুন অধ্যায়। এ যেন প্রকৃতির সাথে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিবিড় আলিঙ্গন।

প্রাণ রসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান ছাত্র ইউনুস রিয়াজ। ২য় সেমিস্টারের এই শিক্ষার্থী বলেন, ক্যাম্পাস মানেই শান্তির তীর। শীতে জরাজীর্ণ প্রকৃতিতে শূন্যতা ভর করে। কিন্তু বসন্ত এলে ডালে ডালে সবুজের সমারোহ ও ফুলে ভরে উঠে। 

তিনি আরো বলেন, বাদাম তলায় বসলে শীতল অনুভূতি পাওয়া যায়। এই যান্ত্রিক শহরে এক টুকরো শান্তি খুঁজে পাই এখানেই। গাঢ় সবুজের মাঝে লালচে ভবনগুলো সেজেছে নতুন রুপে।

গণ বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির বিতার্কিক রুহ্বা ফাতেমা বলেন, ইট-পাথরের রাজ্যে নিশ্বাস ফেলার জায়গা নেই। তবে ক্যাম্পাসে এলে মন ভরে শ্বাস নিতে পারি৷ পাতাহীন গাছে সবুজের আগমন জানান দেয় বসন্তের। দমকা হওয়া, কোকিলের ডাক মন নাড়িয়ে দেয়। গ্রামীণ সৌন্দর্যের মিলনায়তন গবি ক্যাম্পাস।

ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্সেস অনুষদের তৃতীয় সেমিস্টারে পড়ছেন রুমন হোসেন। তিনি বলেন, চীনের উহানে শনাক্ত হওয়া করোনাভাইরাস এখন বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক। শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাস থেকে দূরে আসেন। এদিকে ঋতুর মুগ্ধতা ছড়াচ্ছে গবি। এ প্রকৃতি ছুঁতে পারছে না অনেকেই। ক্যাম্পাসের এমন চেহারা দেখতে না পেরে ছটফট করছে প্রকৃতি প্রেমীরা।

ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক সোনিয়া শিরিন বলেন, এখানে পাখিদের আনাগোনা সারাবছরই দেখা যায়। এই মূহুর্তে তাদের আনাগোনা খানিকটা বেড়েছে। শীত চলে গেলেও আজও ভোরবেলা এখানে ঘাসের ডগায় শিশির জমে। ক্যাম্পাসের সবুজ মাঠে পা রাখলে হৃদয় আনন্দে নেচে ওঠে। 

তিনি বলেন, শিক্ষার্থী নেই, হৈচৈ নেই, গাড়ির কোলাহল নেই, আবর্জনা নেই কেবল শুধু প্রকৃতির অন্তরঙ্গতা।

ব্রেকিংনিউজ/নিহে

breakingnews.com.bd
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি