শিশির রাজনের একগুচ্ছ কবিতা

শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক
১০ জুলাই ২০২০, শুক্রবার
প্রকাশিত: ০৬:০৪ আপডেট: ১২:৫৭

শিশির রাজনের একগুচ্ছ কবিতা

লাল টিপ
 
জীবন হলুদ মার্বেল। নির্বাসিত সবুজ।
স্নানঘরে উবু হয়েছে আছে পৃথিবী
বিভ্রান্ত পথে হারায় ফাগুন সন্ধ্যা
ল্যামপোস্টের আলো; তোমার অনিন্দ্য করতল।
 
বলা হয়নি! চোখ কাজলের নাবিক হিল্লোল
অপেক্ষার সমুদ্র বাগান
ঝিনুক রাতে কুয়াশার দীর্ঘ পাহাড় পথ
সময় চলে; মাধবীলতার আঙুলে হ্যালোসিনেশান।
 
স্নিগ্ধ রেখায় প্রজাপতির লুবান
ভালোবাসা জেনে গেছে সাগরের ঢেউ
ঘুঘু পাখি জলের ময়ূর।
 
সূর্য ছায়ায় জেগেছে অরণ্য লুকিয়ে বৃষ্টি বিষাদ
জোৎস্নায় ভেনাস কপালে কাগজে মায়া
দিঘীর সজল জল; চকচকে রোদ্দুর।
 
তোমার কাছেই নতজানু বিগত জন্মের মুগ্ধতা
হৃদয়ে হিজল কারুকাজ নিশ্চুপ সুন্দর!
 
 
ইরেজার
 
ঘুমিয়ে পড়েছিলাম। নিরীক্ষার ভ্রমর চোখ জাগালো বিস্ময়। দর্পণে অস্ফুট আওয়াজ তরিকা। স্বপ্ন বিহঙ্গ; আমাদের মৌন উচ্চারণ। তোমার চুলে চাঁদ হারালো অলঙ্কার। রজনীগন্ধার দ্বীপ; তীক্ষ্ণ মেঘের বলয়। নীলাভ কেলাসে তড়িৎ মুখের সমুন্নত গোলাপ রঙের জল। জীবনের ইরেজারে মুছে গেছে গতিহীন আলোকবর্ষ। 
 
পাকা সিঁড়ি বেয়ে নেমে আসে দৈব্যদূত। কল্পিত ঈশ্বর লিখেন আগুনে ঝলসে যাওয়া আমারই দেহের সুরতহাল। পৌষের কুয়াশায় নীলগুচ্ছ ঠোঁট মন্দির ছুঁয়ে যাক বর্ষার ভারি বর্ষণ। দিশেহারা কংক্রিটের আস্তরণ। এ শহর নিয়নে ডুবন্ত কারাগার। লিখেছিলাম, পাহাড় রাতে মাটির স্যাঁতস্যাঁতে বুনন। নৈঃশব্দ ক্যানভাসে ভালোবাসার অমৃত সুরা! নিথর বৃক্ষের মগডালে ঝুলে আছে আহত ছন্নছাড়া গৌড়ীয় বালকের ভাষা। পৃথিবী তখনো মুখে জড়িয়ে আছে কনকচাঁপার জৌলুস; আদি পলির ভগ্নস্তুপে ইরেজারে মুছে যাওয়া আমাদের ছনঘর। 
 
 
স্মারক
 
নাক ফুল নেচে উঠে ভাঁটপাতা বিলের আড়ালে। শাড়ি জুড়ে গ্লাডিয়েটর আগুন; হেলেনের সাম্রাজ্য। নিঃশ্বাসে লেবু পাতার ঘ্রাণ। তোমার প্রার্থনায় জল নূপুরে সেইসব জোনাকির গল্প। পিতামহের ধূ ধূ শ্মশান আমাদের একান্ত বেলী ফুল। ঝিঁঝিঁর ডাকে গ্রাম পাখি সন্ন্যাস। তোমার চোখের কাজলে নিদ্রাহীন রাতের কোলাস। 
 
রাজটীকার অবিনশ্বর সরস্বতী সহজ বোধের হৃদয় পেন্ডুলামে। জেব্রার বাগান পেরিয়ে গেলে পা ভিজে জলের উত্তাপে। বালিকার খোঁপায় কাচঘর ম্লান হয়ে যায়। তোমাতেই জড়িয়ে গেছে নিঃশ্বাসের গ্রিনহাউজ; আলোক শহরের নিথর ঝাড়বাতি। প্রিয়তমার আদ্র কথায় বোহেমিয়ান ঘোর। কাদামাটির রুমালে সোহাগী পুতুল। হাঁস সাঁতারে শালুক দ্বীপ; ভালোবাসায় অন্ধ নদীর স্মারক।
 
 
তেলগ্রাফের ক্যামেরা
 
কলমের ডগায় ঝুলে হেমন্তের আদর
বহুগামী মর্সিয়ায় আমরা দেখি নীল জোৎস্না
ঝুলি ভর্তি চটের ঘুড়ি, তেলের তৈজসপত্র।
 
কে লিখে কৃষ্ণলীলার বহুবাদী চরিত্র
অমৃত বচনে বেলপাতার ডিবি!
 
তুমি পতি! পুরস্কারের দেবতা
ঘোলা শ্লেটে চক বার্ণিশে আঁকো
মধুমতী নদী; ভূয়সী সনদ।

মাছের চোখে পৃথিবী হাঁটে
লজ্জাপতির বনে শৃগালের উৎপাত
মুখোশ খসে গেলে তেলাপোকার স্নায়ুতন্ত্র নিকষ সাদা
বাসেত স্যার সযত্নে শিখিয়েছিলেন তেলাপোকা নয়; 
মানুষের মেরুদণ্ড কশেরুকার বাহাদুরি।
 
আহা পুরস্কার! অধিপতি বাউল মিছিলে মাটিতে নামে না
মুখের শক্ত ফেনায় ঝড় তুলে আর্কায়িক মানব।
 
আমার কোনো বসতি নেই, নেই নগরের জৌলুস
কাশবনে যে শিশুটি পুতুল খেলে নিজের ছায়ায়
এটিই শুদ্ধতম সরলতা।
 
তেলের গ্রাফে তিনি লিখেন- কালো চুম্বকের ঘোষণা
গদগদ রবের উলুধ্বনি মৌমাছির বন্ধ্যা জীবন
অনুর্বর বালিতে ফোটেনা গোলাপ; অগণিত আলোক তর্জনি
যেখানে তোমার চোখই ঘূর্ণায়মান ক্যামেরা।
 
ব্রেকিংনিউজ/এমআর

breakingnews.com.bd
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি