লাউ চাষে পারুল বেগমের ভাগ্যবদল

রেজাউল ইসলাম তুরান, খুলনা
২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ১২:২৫

লাউ চাষে পারুল বেগমের ভাগ্যবদল

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার গুটুদিয়া ইউনিয়নের কাচনাপাড়া গ্রামের নারী কৃষক পারুল বেগম। তিনি তার জমিতে সবজি হিসেবে লাউ চাষ করে স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছেন। আট বছরের ব্যবধানে তিনি নিজের ভাগ্যবদল করতে পেরেছেন। মাত্র দেড় বিঘা জমিতে লাখ টাকা আয়ের স্বপ্ন দেখছেন এই উদ্যমী নারী কৃষক।

সরেজমিনে ওই গ্রামে গিয়ে দেখা গেছে, পারুল বেগমের জমির মাচার ওপরে ছেঁয়ে আছে সবুজের সমারোহ। আর নিচে ঝুলছে লাউ। ছোট-বড় ও মাঝারি আকারের হাজারো লাউ। দেখলে চোখ জুড়িয়ে আসে।

পারুল বেগম'র সাথে কথা বলে জানা গেছে, ৩০ বছর আগে বিয়ে হয় তার। স্বামী ফার্নিচারের কাজ করতেন। স্বামী থাকলেও সংসারের দিকে নজর ছিল না তার। মাঝে মাঝে নিরুদ্দেশও হতেন। সেই থেকে খাল-বিলে কাজ করে আমাকে সংসার চালাতে হয়। এরই মধ্যে সংসার বড় হয়, ঘরে আসে এক মেয়ে আর এক ছেলে। তারা বড় হতে থাকে। সঙ্গে চিন্তা বাড়তে থাকে। মেয়েকে এইচএসসি পর্যন্ত পড়ানোর পর বিয়ে দিয়েছি। আর বর্তমানে ছেলে এবং মাকে নিয়ে আমার সংসার।

তিনি বলেন, নিজের জমি না থাকায় রাস্তার পাশের পতিত জমি, অন্যের জমি বর্গা নিয়ে সেখানে ফসল চাষ করেছি। গত বছর দেড় বিঘাজমি ১৫ হাজার টাকায় বর্গা নেন। সেখানেই লাউ চাষ করে লাখ টাকা আয় করেছেন। জমি প্রস্তুত, সার, সেচ, কীটনাশক, মাচা তৈরি ও পরিচর্যাসহ অন্যখাতে তার সব মিলে খরচ হয়েছে ৪০ হাজার টাকার মত। বাজার থেকে হাইব্রিড জাতের বীজ কিনে চারা উৎপাদন করেন তিনি। সেই চারা এখন বড় হয়ে ফলন দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আমি অন্য কাজ করতে পারতাম। কিন্তু কৃষি কাজ আমার ভাল লাগে। তাই এই দিকে ঝুঁকে গেলাম। এখন ভালই আছি। এলাকার অনেকেই আমার বাগান দেখে নতুন করে লাউ চাষাবাদের স্বপ্ন দেখছে। জীবনে অনেক দুঃখ-কষ্ট সহ্য করে এখানে এসে দাঁড়িয়েছি। এখন আর কোন কষ্টই আমার কাছে কষ্ট মনে হয় না। অনেক স্বাদ করেই আমি লাউ চাষাবাদ করেছি। আমি মনে করি আমি সফল।

স্থানীয় বাসিন্দা মো. আতাবুর রহমান জানান, পারুল বেগম একজন সংগ্রামী নারী। কৃষি কাজে তার কষ্ট দূর হয়েছে। এখন তার লাউ ক্ষেত দেখতে লোক আসে। যে দেখে তারই মন ভরে যায়। এ এলাকায় পারুল বেগম নারীদের জন্য একজন আদর্শ।

তিনি বলেন, তার মতো এই এলাকার অনেকেই সবজি চাষ করে আয় করছেন। প্রতিটি পরিবারে এসেছে সচ্ছলতা। সেই সঙ্গে পাল্টে গেছে পুরো গ্রামের দৃশ্যপট। চারদিকে এখন সবজির ক্ষেত।

ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. মোছাদ্দেক হোসেন জানান, একজন উদ্যোমী নারী চাষি পারুল বেগম। তিনি এ এলাকার নারীদের অহংকার। জীবন যুদ্ধে তিনি সফল। তিনি লাউ ছাড়াও বেগুন, টমেটোসহ অন্য সবজির আবাদ করেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা কৃষি বিভাগ থেকে তাকে আধুনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ, উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারসহ যাবতীয় কৃষি পরামর্শ দিয়ে আসছি। তার লাউ ক্ষেতে না গেলে বিশ্বাস করা যায় না। কি পরিমাণে লাউ হয়েছে সেখানে। প্রতিটি গিটে গিটে লাউ। তাকে দেখে অনেকেই উদ্বুদ্ধ হচ্ছে।

ব্রেকিংনিউজ/নিহে

breakingnews.com.bd
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা, ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫, ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
প্রকাশক : মো: মাইনুল ইসলাম
 শারাকা ম্যাক, ২ এইচ-প্রথম তলা,
  ৩/১-৩/২ বিজয় নগর, ঢাকা-১০০০
 টেলিফোন : ০২-৯৩৪৮৭৭৪-৫,
 ইমেইল : breakingnews.com.bd@gmail.com
 নিউজরুম হটলাইন : ০১৬৭৮-০৪০২৩৮, ০২-৮৩৯১৫২৪
 নিউজরুম ইমেইল : bnbdcountry@gmail.com, bnbdnews.reporter@gmail.com
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি