শিরোনাম:

রাজশাহীতে শীতের আঁচড়

সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী
৫ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার
প্রকাশিত: 5:05 আপডেট: 5:07
রাজশাহীতে শীতের আঁচড়
ফাইল ছবি

কয়েকদিন থেকে রাজশাহী অঞ্চলে শীতের আবহ বিরাজ করছে। এরই মধ্যে শরীরে উঠছে মোটা কাপড়। আর ক’দিন পর শীতের তীব্রতা আরও বাড়বে বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে। তাই শুরু হয়েছে শীত মোকাবিলার প্রস্তুতি। ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিভাগও প্রস্তুত হচ্ছে শীতার্তদের পাশে দাঁড়ানোর। সরকারি এই দফতরটি জানাচ্ছে, রাজশাহীর শীতার্তদের মাঝে এবার প্রায় ৪৮ হাজার কম্বল বিতরণ করা হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা ত্রাণ ও পূর্নবাসন দফতরের প্রধান সহকারি আবদুল খালেক বলেন, তাদের হাতে এখন ১০ হাজার কম্বল রয়েছে। আরও ৩৭ হাজার ৮০০ কম্বল তারা বরাদ্দ পেয়েছেন। কিছুদিনের মধ্যে সেগুলো রাজশাহী চলে আসবে। এ সময়ের মধ্যে জেকেও বসবে শীত। বিভিন্ন এলাকার জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে তা শীতার্তদের হাতে পৌঁছে দেয়া হবে।

এদিকে আবহাওয়া অফিসে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এখন দিনের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকছে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। আর সর্বনিম্ন থাকছে ১৩ ডিগ্রির কাছাকাছি। দিন দিন তাপমাত্রা কমছে, বাড়ছে শীত। বিশেষ করে শহরের চেয়ে গ্রামে শীত পড়ছে বেশি। আর এই হালকা শীতেই গরম কাপড়ের জন্য অপেক্ষা করছে নগরীর ছিন্নমূল মানুষগুলো।

নগরীর ভদ্রা এলাকার বস্তির বাসিন্দা বৃদ্ধ মোক্তার আলী (৬০) ও পবা উপজেলার নওহাটা বাজারের হতদরিদ্র আছিয়া বেগম বলেন, অনেক কষ্টে আমাদের শীত পার করতে হয়। অনেকে কম্বল নিয়ে আসে, কিন্তু কেউ পায় আবার কেউ পায় না। গতবার আমি কোনো কম্বল পাইনি। তবে এবার শীতের শুরুতেই একটা কম্বল পেলে উপকার হবে। বস্তির বাসিন্দা ফাতেমা বেগম (৫৫) বলেন, গতবার কম্বল পেয়েছিলাম। তাই শীত নিবারণ করা সম্ভব হয়েছিল। এবার একটা কম্বল পেলে শীতটা ভালভাবে কাটাতে পারব।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, এবার জেলার ৯ উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ও পৌরসভা এলাকায় ৩৩৩টি করে কম্বল বিতরণ করা হবে। রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকার ৩০টি ওয়ার্ডেও বরাদ্দ ৩৩৩ কম্বল। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে হতদরিদ্র শীতার্তদের মাঝে কম্বলগুলো বিতরণ করা হবে বলে জানান তিনি।

ব্রেকিংনিউজ/এসডিএম/এনএসএন

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2