শিরোনাম:

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের বরখাস্তের দাবি, ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
৪ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: 7:16
ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের বরখাস্তের দাবি, ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের স্কুলছাত্রী অরিত্রী আত্মহননের ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে তিন দফা কর্মসুচির ঘোষণা দিয়েছে ভিকারুন্নিসা নূন স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীরা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা বুধবার থেকে আবারও ক্যাম্পাসের গেটে অবস্থান নেবে বলেও জানায় তারা। 

মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) বিকেলে স্কুলটির গেটে অবস্থান নেয়া শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচির কথা জানায়।

তাদের কর্মসূচির গুলো হলো-
১. শিক্ষামন্ত্রীর দেয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ৩ দিনের মধ্যে সুষ্ঠু বিচার না হলে আন্দোলন অব্যাহত। 
২. সকল পরীক্ষা বর্জন। 
৩. আগামীকাল বুধবার সকাল ১০ টায় ফের প্রধান ফটকে অবস্থান।

তাদের দাবি গুলো হলো-
১. অধ্যক্ষ ও শাখা প্রধানের সাময়িক বরখাস্ত নয়, পূর্ণ বরখাস্ত করতে হবে,
২. স্কুলের গভর্নিং বডি বাতিল করতে হবে। 
৩. অরিত্রী হত্যার প্রচলিত আইনে সুষ্ঠু বিচার দাবি। 

এর আগে বিকেল চারটার দিকে শিক্ষার্থীরা ভেতর থেকে বের হয়ে ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের সকল গেটে তালা ঝুলিয়ে প্রধান ফটক অবরোধ করে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।

‘অরিত্রীর মতো আর কোনো শিক্ষার্থী হারাতে চাই না’। ‘অধ্যক্ষ, সহকারি প্রধান শিক্ষক ও গভর্নিং বডির সদস্যদের অপসারণের চাই’, ‘আত্মহত্যার প্ররোচনাকারীদের আইনে বিচার চাই’ বলে তালা ঝুলিয়ে স্লোগান দিতে থাকে।

এসময় তাদের পাশে অভিভাবকদেরও দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

জামাল উদ্দিন নামের এক অভিভাবক জানান, তারা তিন দফা দাবিতে আন্দোলন করছেন। তাদের দাবিগুলো হলো- ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও প্রচলিত আইনে বিচার, প্রিন্সিপাল, ভাইস প্রিন্সিপাল ও গভর্নিং বডির সদস্যদের অপসারণ/পদত্যাগ এবং এবং প্রতিষ্ঠানটির জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা।

উল্লেখ্য, পরীক্ষার হলে মোবাইল দেখে লেখার অপরাধে ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রী অরিত্রিকে বকাঝকার করার পর তার বাবাকেও ডেকে এনে বখাঝকা করেন স্কুলটির প্রভাতী শাখার প্রধান জিন্নাত আরা। এর জেরে আত্মহত্যা করে অরিত্রি।

ব্রেকিংনিউজ/টিটি/জেআই

সংশ্লিষ্ট আরো খবর
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2