শিরোনাম:

সাত দফা না মানলে নির্বাচন হতে দেয়া হবেনা: ফখরুল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
৯ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার
প্রকাশিত: 5:56 আপডেট: 6:52
সাত দফা না মানলে নির্বাচন হতে দেয়া হবেনা: ফখরুল

ঐক্যফ্রন্টের সাত দফা দাবি না মানলে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে দেয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘আমাদের দাবি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে, সংসদ ভেঙে দিতে হবে, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে। তা না হলে নির্বাচন হবে না।’

শুক্রবার (৯ নভেম্বর)রাজশাহীর আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে স্বৈরাচার সরকার আটকে রেখেছে বলেও অভিযোগ করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম ইসলাম আলমগীর। ফখরুল বলেন, ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে এই স্বৈরাচার সরকার আটকে রেখেছে। তিনি অসুস্থ, হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছিল, সেখান থেকে তাঁকে জেলখানায় নেওয়া হয়েছে।’

খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে হত্যা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, ‘কারাগারের অন্ধকারে বেগম জিয়াকে তিলে তিলে হত্যা করা হচ্ছে। যা ব্রিটিশ আমলে হয়নি, পাকিস্তান আমলে হয়নি। অথচ এখন তাই হচ্ছে। মাত্র ১০ বাই ২০ ফুটের একটি রুমে তার জন্য আদালত স্থাপন করেছে সরকার।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সময় খুব সংকীর্ণ, সংকট আরো কঠিন। আজকে প্রশ্ন আমাদের স্বাধীনতা থাকবে কি থাকবে না। আমাদের সংগঠন করার অধিকার থাকবে কি থাকবে না সেই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।’   

তিনি বলেন, ‘এর আগে এই মাঠে রোডমার্চে এসেছিলাম। তখন দেশনেত্রী সাথে ছিলেন। তিনি আজ কারাগারে। তিনি প্রচন্ড অসুস্থ।  তার জন্য কারাগারে ছোট একটি ঘরের মধ্যে বিচারালয় স্থাপন করা হয়েছে। তারা পুলিশ দিয়ে জনগনের অধিকারকে ধ্বংস করতে চায়।’

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘শত বাধা-বিপত্তি উপেক্ষা করে আপনার উপস্থিত হয়েছেন। পথে পথে বাধা অতিক্রম করে আপনারা গণতন্ত্রের জন্য এসেছেন। এখন সংকট আরও কঠিন, আরও ভয়াবহ। আজকে প্রশ্ন, গণতন্ত্র থাকবে কি থাকবে না। আমাদের কথা বলার অধিকার, ভোট দেওয়ার অধিকার থাকবে কিনা, তা প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের রাজশাহী বিভাগের সমন্বয়ক মিজানুর রহমান মিনুর সভাপতিত্বে জনসভায় জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী,গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা:জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, মির্জা আব্বাস, ড.আব্দুল মঈন খান, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, মো:শাজাহান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, সাংগঠনিক সম্পাদ রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা:মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, গণফোরামের কেন্দ্রীয় নেতা জগলুর হায়দার আফ্রিক, নাগরিক ঐক্যের শহীদুল্লাহ কায়সার, আব্দুল গোফরান, আব্দুর রফ ইউছুপ, সৈয়দা আশ্রাফি পাপিয়া প্রমুখ বক্তব্য দেন।

ব্রেকিংনিউজ/এএইচ/জেআই

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2