শিরোনাম:

সংসদে বৃহন্নলাদের জন্য আসন সংরক্ষণের দাবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
৮ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: 6:43 আপডেট: 6:45
সংসদে বৃহন্নলাদের জন্য আসন সংরক্ষণের দাবি

জাতীয় সংসদে বৃহন্নলা বা হিজড়া জনগোষ্ঠীর জন্যেএকটি আসন সংরক্ষণের দাবি জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বৃহন্নলা নামের একটি সংগঠন এ দাবি জানায়।

মানববন্ধনে সংহতি জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনইস্টিটিউটের বিশেষ শিক্ষা বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ডীন প্রফেসর ড.সাদেকা হালিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণা ইনইস্টিটিউট ডিরেক্টর সৈয়দা তাহমিনা আখতার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আই ই আর প্রফেসর ড. তারিখ আহসান। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা ও গবেষণা ইনইস্টিটিউটের শিক্ষার্থী ও বৃহন্নলার সভাপতি সাদিকুল ইসলাম, ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী হৃদয় সাহা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাইফুল্লাহ বিন মুসলিম ও ঢাকা শহরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত হিজড়া জনগোষ্ঠী।

 ড. মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান,বলেন, ‘বৃহন্নলারা আমাদের অন্য সবার মতই, তাদেরও আমাদের সবার মত পরিবার রয়েছে, কিন্তু সমাজের নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির কারনে তারা আজ পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন, অধিকার থেকে বঞ্চিত।’

 তিনি অভিযোগ করে বলেন , ‘বৃহন্নলাদের উন্নয়নের জন্য সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের কোনোটিরই তেমন বাস্তবায়ন লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। আগামী নির্বাচনে সকল দলের ইশতেহারে আমরা বৃহন্নলাদের অধিকার পূরনের প্রতিশ্রতি দেখতে চাই। সংসদে তাদের জন্য একটি সংরক্ষিত আসন আমরা দেখতে দেখতে চাই।’ বৃহন্নলাদের অধিকার পূরনের প্রশ্নে দায়িত্বশীলদের গড়িমসির সমালোচনাও করেন তিনি এবং সমাজের নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির অনেক বাস্তব অভিজ্ঞতাও তুলে ধরেন ।

ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী হৃদয় সাহা বলেন, ‘সচেতন একজন শিক্ষার্থী হিসেবে তাদের নাগরিক অধিকার প্রাপ্তির দাবি জানাতে আসতে পেরে আমার ভাল লাগছে। আইনগতভাবে তাদেরও নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ও বিভিন্ন দলে অংশ নিয়ে মত প্রকাশ এবং প্রতিনিধিত্ব করার অধিকার রয়েছে।’

 বৃহন্নলা রুবি বলেন, ‘বাংলাদেশ ১১ লক্ষ রোহিঙ্গা আশ্রয় দিয়ে তাদের বাঁচিয়ে রাখতে পারলে হিজড়া জনগোষ্ঠি কী দোষ করেছে যে, আমাদের অধিকার পূরনে সবার এতো অবহেলা?’

 বৃহন্নলা হাসনা বলেন, ‘একমাত্র আমাদের প্রতিনিধিই পারে আমাদের মনের কথা বুঝতে, আমাদের সমস্যাগুলো যথাযথভাবে তুলে ধরতে । তাই আমরা নির্বাচন করতে চাই। সংসদে সংরক্ষিত একটি আসন চাই। যার মাধ্যমে আমরা সহেজই আমাদের দাবি জানাতে পারব। এবং তাতে আমাদের সম্পর্কে সবার ধারণা পালটে যাবে। আমরা একজন সাংবাদিক হতে চাই, হতে চাই একজন শিক্ষক কিংবা অফিসার। অন্য দেশে সম্ভব হলে আমাদের দেশে কেনো নয়?''

 এসময় তারা আরও কিছু দাবি তুরে ধরেন। দাবি গুলো হলো: আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বৃহন্নলাদের মধ্য থেকে প্রতিনিধি দিতে হবে; জাতীয় সংসদে বৃহন্নলাদের প্রতিনিধির জন্য একটি আসন সংরক্ষণ করতে হবে; সকল রাজনৈতিক দলের সাংগঠনিক কাঠামোতে বৃহন্নলাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিতকরন ও আসন্ন নির্বাচনের ইশতেহারে সকল রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে তাদের অধিকার নিশ্চিতকরনের প্রতিশ্রুতি দিতে হবে।


ব্রেকিংনিউজ/এএইচএস/জেআই

 

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2