শিরোনাম:

বায়ুদূষণে কমছে স্মৃতিশক্তি, বাড়ছে মৃত্যুঝুঁকি

পরিবেশ ডেস্ক
৮ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: 4:01 আপডেট: 6:37
বায়ুদূষণে কমছে স্মৃতিশক্তি, বাড়ছে মৃত্যুঝুঁকি

গোটা বিশ্বে প্রতিদিন মানুষই প্রকৃতি ও পরিবেশকে অস্থির করে তুলছে। বিভিন্ন ক্ষতিকর ও বিষাক্ত পদার্থের ব্যবহারে ব্যাপক হারে দূষিত হচ্ছে আমাদের বায়ুমণ্ডল। অথচ সেই দূষিত বায়ু আমরা নিঃশ্বাসের সঙ্গে টানটি প্রতি মুহূর্তে।  

সাধারণত, গাড়ি, কলকারখানা, বিদ্যুৎ ও তাপ উৎপাদনকারী যন্ত্র থেকে উৎপন্ন ধোঁয়া বায়ুদূষণের অন্যতম উৎস। অ্যান্টার্কটিকা মহাদেশের ঊর্ধ্বে বায়ুমণ্ডলের ওজোন স্তরে ক্রমবর্ধমান ফাটল সৃষ্টি বায়ুদূষণের আরও একটি অন্যতম কারণ। 

এছাড়া মানবজাতি, উদ্ভিদরাজি, পশুপাখি এবং জলজ প্রতিবেশ ব্যবস্থার ওপর অ্যাসিড বৃষ্টি সংঘটনের মাধ্যমেও বায়ুদূষণ নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে আসছে। আর এই বায়ুদূষণে মানুষ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি স্মৃতিশক্তিও হারাচ্ছে। 

সাম্প্রতিককালে রাজধানী ঢাকা এশিয়ার বিভিন্ন শহরে বায়ুদূষণ মাত্রা ছাড়িয়েছে।  বাতাসে লাগামছাড়া ধুলো, ধোঁয়া বুকের সংক্রমণ ও হাঁপানির মতো সমস্যার সঙ্গে সঙ্গে স্মৃতিশক্তিরও বিপদ ডেকে আনছে। 

এ নিয়ে বিজ্ঞানবিষয়ক মার্কিন পত্রিকা ‘প্রসেডিং অব ন্যাশনাল অকাডেমি অব সায়েন্সেস’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে গবেষকেরা জানান, বায়ুদূষণের কারণে সব বয়সী মানুষের মৃত্যুঝুঁকি বাড়ছে। 

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, বায়ুদূষণে বয়স্কদের স্মৃতিশক্তি কমে যাচ্ছে। নাম, শব্দ মনে রাখার শক্তি কমছে। সমস্যা হচ্ছে শব্দবন্ধ তৈরি করে বাক্যগঠন বা সহজ হিসেব করার ক্ষেত্রেও।

গবেষকরা মনে করেন, বায়ুদূষণের জেরে ফুসফুসে সংক্রমণ কিংবা শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে সতর্ক করা হচ্ছে। যার সর্বাধিক প্রভাব পড়ছে শিশু ও বয়স্কদের ওপর। এছাড়া স্মৃতিশক্তি হারানোর মতো ঘটনায় মানুষ অনেককিছুই ঠিকঠাকভাবে করতে পারছে না। 

মানবদেহে যেকোনও অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে দূষণই ক্ষতির কারণ। তবে কিছু ক্ষেত্রে যেমন স্নায়ুর উপর দূষণের প্রভাব দীর্ঘস্থায়ী হয়। বায়ুদূষণের ফলে বিশ্বজুড়ে মানুষের যে সমস্যাটি হচ্ছে। যার প্রভাবে কমছে কর্মক্ষমতাও।

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2