শিরোনাম:

বিআরবির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

জাহিদ হাসান, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
২৪ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার
প্রকাশিত: 3:08
বিআরবির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

‘৪০ বছরে বিশ্বজুড়ে’-এ স্লোগানকে সামনে রেখে গৌরবময় সাফল্যের ধারাবাহিকতায় নানা আয়োজনে কুষ্টিয়ায় দেশসেরা কেবল প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান বিআরবি কেবল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে কুষ্টিয়ার বিসিক শিল্পনগরীতে বিআরবি গ্রুপের কারখানা চত্বরে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারী, প্রশাসনের কর্মকর্তা, ব্যাংক, বীমার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী প্রতিনিধি ও শ্রমিক-কর্মচারীদের উপস্থিতিতে জাতীয় ও প্রতিষ্ঠানের পতাকা উত্তোলন এবং বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিআরবি গ্রুপের চেয়ারম্যান শিল্পপতি মজিবর রহমান।

এরপর বিআরবি কেবল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিআরবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক পারভেজ রহমানসহ কয়েকজন বিদেশি ইন্ডাস্ট্রিয়াল, ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তা।

আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে বিআরবি গ্রুপের চেয়ারম্যান শিল্পপতি মজিবর রহমান বলেন, দেশ ও বিদেশে আপনাদের ভালোবাসায় আজ আমি এখানে আসতে পেরেছি। আমার ও আমার পরিবারের জন্য দোয়া করবেন আগামী দিনেও যাতে বিআরবি এভাবেই এগিয়ে যেতে পারে।

তিনি বলেন, কুষ্টিয়াসহ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে জানি না বিআরবি কতটুকু সাফল্য রাখতে পারছে। তারপরও আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আমরা মালিক-শ্রমিক ঐক্যবদ্ধভাবে পরিশ্রম করে চলেছি। কুষ্টিয়াবাসীর জন্য আমি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। কুষ্টিয়াসহ দেশের সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে গড়ে তোলা হয়েছে বিআরবি হাসপাতাল এবং কুষ্টিয়ায় গড়ে উঠছে সেলিমা বেগম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল নামে একটি বিশ্বমানের আধুনিক চিকিৎসা কেন্দ্র। যেখানে গরিব অসহায় ও সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যসেবায় সুচিকিৎসার ব্যবস্থা থাকবে।

ইতোমধ্যে কুষ্টিয়া শহরের প্রাণকেন্দ্রে শিক্ষাব্যবস্থার জন্য আধুনিকমানের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছি। ইনশাআল্লাহ সুন্দর ও সার্থকভাবে স্কুলের শিক্ষাকার্যক্রম চলছে। তিনি শ্রমিক কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, এই প্রতিষ্ঠানকে আপনারা নিজের মনে করে কাজ করে যাবেন। ব্যবসার পাশাপাশি সমাজসেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চাই বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আলোচনা ও দোয়া মাহফিল শেষে বিশালাকৃতির কেক কাটা হয়। এ সময় কারখানার সব শ্রমিক, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ দেশ-বিদেশ থেকে আসা অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া প্রতিষ্ঠানে ভালো কাজ করার জন্য শ্রমিক/কর্মকর্তাকে সম্মাননা প্রদানসহ অবসরে যাওয়া, কর্মরত অবস্থায় মৃত ব্যক্তির পরিবারসহ কর্মকর্তাদের অর্থ প্রদান করেন বিআরবি গ্রুপের চেয়ারম্যান মজিবর রহমান।

দুপুরে মধ্যহ্নভোজের পর শ্রমিক-কর্মচারীদের অংশগ্রহণে বিনোদনমূলক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে কারখানা এলাকা।

দেশের এ স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে কুষ্টিয়া বিসিক শিল্পনগরীকে সাজানো হয়েছিল বর্ণিল সাজে।

ব্রেকিংনিউজ/এনএসএন

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2