শিরোনাম:

ওজন কমাতে টক দই

স্বাস্থ্য ডেস্ক
১২ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার
প্রকাশিত: 5:52
 ওজন কমাতে টক দই

টক দই অনেকেই খেতে পছন্দ করেন আবার অনেকেই খেতে চান না। কেও কেও আবার রূপচর্চায় টক দই ব্যবহার করেন। আবার অনেকেই নানা রকম রান্নার রেসিপিতে টক দই ব্যবহার করেন। টক দইয়ে রয়েছে নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা সমাধানের উপকরণ।  প্রতিদিন নিয়ম করে মাত্র ১ কাপ টক দই খেলে শরীরের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দূরে রাখা যায়। টক দইয়ে যেসব স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে সেগুলো হচ্ছে-

১. কোষ্ঠকাঠিন্য কতটা বিরক্তিকর সমস্যা তা ভুক্তভোগী মাত্রেই জানেন।  টক দইয়ে থাকা ল্যাকটিক এসিড কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করে। এ ছাড়া নিয়মিত টক দই খেলে কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে।

২. আমাদের অনেকেরই অতিরিক্ত তেলে ভাজাপোড়া ও মসলাযুক্ত খাবার খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে। এর ফলে অনেকেই বদহজমের সমস্যায় ভোগেন। এই সমস্যা দূর করতে দারুন কার্যকরী টক দই। এতে থাকা ফারমেন্টেড এনজাইম খাবার হজমে সহায়তা করে এবং বদহজম প্রতিরোধ করে।

৩. টক দইয়ে ফ্যাটের পরিমাণ অনেক কম থাকে। এছাড়া এটি রক্তের কোলেস্টেরল কমাতে দারুন কার্যকরী। এ কারণে এটি স্ট্রোক, হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

৪. নিয়মিত টক দই খাওয়ার অভ্যাস রক্ত পরিশোধনের কাজ করে। এটি রক্তকে টক্সিন মুক্ত রাখতে সহায়তা করে।

৫. উচ্চ রক্তচাপে অনেক মানুষই ভুগেন। এর জন্য নানা চিকিৎসা নিয়েও কাঙ্খিত ফলাফল পান না। উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা দূর করতেও টক দইয়ের জুড়ি নেই। নিয়মিত টক দই খাওয়ার অভ্যাস কোলেস্টরল কমায় এবং সেই সঙ্গে কমায় উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি।

৬. দুধ একটি আদর্শ খাদ্য। আমাদের শরীরের জন্য দুধ খুবই কার্যকরী একটি উপাদান তবে অনেকেই দুধ খেতে পারেন না, হজমে সমস্যা হয়। তারা দুধের পরিবর্তে নিয়মিত টক দই খেতে পারেন।এটি হজমের সহায়ক হবে।

৭. টক দই ওজন কমাতে দারুনভাবে সাহায্য করে। ফ্যাট কম থাকায় এটি ওজন কমাতে ভূমিকা রাখে। সেই সঙ্গে ক্ষুধাও কম অনুভূত হয়।

ব্রেকিংনিউজ/জেআই

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2