শিরোনাম:

চট্টগ্রামে ‍‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত অসীম যুবলীগ নেতা

স্টাফ করেসপডেন্ট, চট্টগ্রাম
১২ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার
প্রকাশিত: 12:25
চট্টগ্রামে ‍‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত অসীম যুবলীগ নেতা

চট্টগ্রামে র‌্যাবের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত মাদক ব্যবসায়ী অসীম রায় বাবু (২৯) যুবলীগ নেতা বলে জানা গেছে। মহানগর যুবলীগের সিটি মেয়র আ.জ.ম নাসির সমর্থিত অনুসারীদের সাথে যুবলীগের রাজনীতি করতেন তিনি। তবে নগর যুবলীগের কি পদে আছেন তিনি এ বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে মুরাদপুর মোড়ের এক নম্বর রেল গেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত আসীম রায় বাবু চট্টগ্রামের বাঁশখালীর পূর্ব চাম্বল গ্রামের গুরুসদয় রায়ের ছেলে এবং চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল।

র‌্যাবের সহকারী পরিচারক (মিডিয়া) মিমতানুর রহমান জানান, মুরাদপুর মোড়ের এক নম্বর রেল গেট এলাকায় র‌্যাব মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতারে অভিযানে যায়। এ সময় র‌্যাব একটি প্রাইভেটকারকে থামার সংকেত দিলে গাড়ি থেকে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করে মাদক ব্যবসায়ী অসীম রায়। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরা পাল্টা গুলি ছুঁড়লে অসীম রায় বাবু নামে একজন নিহত হয়। এসময় কারের অপর দুইজন পালিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, অসীম রায় বাবুর ছোঁড়া গুলিতে র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের স্কোয়াড্রন লিডার শাফায়াত জামিল ফাহিম গুলিবিদ্ধন হন। এছাড়াও আহত হন আরও তিন র‌্যাব সদস্য। তাদের চট্টগ্রাম সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে একটি বিদেশি পিস্তল, গুলি ও বিপুল পরিমাণ ইয়াবা পাওয়া গেছে। নিহত ব্যক্তি একটি প্রাইভেটকারে করে বায়েজিদের দিকে যাচ্ছিল।

এদিকে দুই পক্ষের গোলাগুলির সময় পালিয়ে যাওয়া প্রাইভেটকার চালক পরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘নগরীর রেয়াজুদ্দিন বাজার থেকে তার মালিক আসীম রায়কে নিয়ে বায়োজিদ অক্সিজেন যাওয়ার সময় রাত সাড়ে ১১টার একটু পর প্রাইভেটকারটি মুরাদপুর রেল ক্রসিং এ পৌঁছালে রেলক্রসিং এর গেইট পড়ে। তখন গাড়ি থামার কয়েক মিনিটের মাথায় দেখি কিছু লোক গাড়ির সামনে এসে দাঁড়িয়ে থাকাতে আমার মালিক বলে আপনারা কারা কি চান। বলতে বলতে দুপক্ষের মধ্যে গোলাগুলি শুরু হয়। তখন আমি ভয়ে পালিয়ে যাই।’

অপর এক প্রতক্ষ্যদর্শী জানান, ‘রেলক্রসিং এ প্রাইভেটকারটি থামার সাথে সাথে পিছন থেকে র‌্যাবের গাড়ি আসে। তখন দেখতে পাই প্রাইভেটকার থেকে একজন নেমে সরাসরি র‌্যাব সদস্যদের দিকে সরাসরি ফায়ার করতে থাকে। এতে র‌্যাবের ৩/৪ জনের গায়ে গুলি লেগেছে। তারা তাকে দৌঁড়ানোর সময় পিছন থেকে আরও র‌্যাব সদস্যরা এসে সরাসরি তাকে গুলি করলে ঘটনাস্থলে সে পড়ে যায় এবং সাথে সাথে মারা যায়।’

ব্রেকিংনিউজ/ জেএম/ এসএ 

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2