শিরোনাম:

‘ধর্ষণের অভিযোগ মিথ্যা, নথি বানোয়াট’

খেলাধুলা ডেস্ক
১১ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: 5:40
‘ধর্ষণের অভিযোগ মিথ্যা, নথি বানোয়াট’

ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর বিরুদ্ধে। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাথরিন মায়োরগা নামের এক সাবেক মডেল কাম বার ড্যান্সার তুলেছেন এ অভিযোগ। বরাবরই তা অস্বীকার করে আসছেন পর্তুগীজ যুবরাজ। এবার রোনালদোর আইনজীবী দাবি করলেন, রোনালদোর বিরুদ্ধে করাপ ধর্ষণের অভিযোগ মিথ্যা, ধর্ষণ প্রমাণে যে নথিগুলো দেখানো হচ্ছে তা বানোয়াট।

রোনালদোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মায়োরগা বলে, ২০০৯ সালে তিনি লাস ভেগাসে একটি পার্টিতে রোনালদোর কাছে ধর্ষিত হয়েছেন। 

সেই খবর প্রচারণায় এনে আলোচনায় এসেছে জার্মান ম্যাগাজিন দের স্পিগেল। এই খবরকে মিথ্যা বলে আগেই অস্বীকার করেছেন রোনালদো। এবার তার আইনজীবী পিটার ক্রিস্টিয়ানসেন এই জুভেন্টাস তারকার নামে অভিযোগকে অস্বীকার করেছেন। ক্রিস্টিয়ানসেন এই রিপোর্টকে চুরি এবং পরিবর্তিত ডিজিটাল ডকুমেন্ট হিসেবে চিহ্নিত করেন এবং কিছু অংশকে সম্পূর্ণ বানোয়াট বলে বিবৃতি দেন।

ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করলেও, ২০১০ সালে মায়োরগার সঙ্গে তিন লাখ ৭৫ হাজার ডলারের একটি চুক্তি হয়েছিল বলে স্বীকার করেছেন ক্রিস্টিয়ানসেন। সেই শারীরিক সম্পর্কের ঘটনা যে উভয়ের সম্মতিতে ঘটেছিল এবং তা ধর্ষণ ছিল না, সেটি স্বীকার করেছেন এই আইনজীবী। কিন্তু এই চুক্তিকে রোনালদোর অনুশোচনা হিসেবে দেখছেন না তিনি।

রোনালদোর আইনজীবী বলেন, ‘২০১৫ সাল নাগাদ বিভিন্ন আইনি প্রতিষ্ঠানসহ ইউরোপের অনেক প্রতিষ্ঠান সাইবার হামলার শিকার হয় এবং আক্রমণকারীরা অনেক তথ্য চুরি করে। হ্যাকার এমন কিছু তথ্য চুরি করে এবং পরে দায়িত্বজ্ঞানহীন একটি পত্রিকায় সেগুলো প্রচারিত হয়, যার মধ্যে কিছু অংশ ছিল সম্পূর্ণ বানোয়াট। আবারও বলছি, ২০০৯ সালে যা কিছু হয়েছিল, সেটি রোনালদো এবং মায়োরগার সম্মতিতেই হয়েছিল।’

ব্রেকিংনিউজ/জেআই

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2