শিরোনাম:

তফসিল ঘোষণার আগে রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চায় ইসি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার
প্রকাশিত: 12:56 আপডেট: 7:28
তফসিল ঘোষণার আগে রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চায় ইসি

চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষে বা জানুয়ারির প্রথম দিকে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করতে চায় নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এজন্য আগামী নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ঘোষণার পরিকল্পনা রয়েছে ভোট আয়োজনকারী সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি।

তফসিল ঘোষণার আগে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে সময় চেয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। গত সোমবার (৮ অক্টোবর) ইসি সচিবালয় থেকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বঙ্গভবনে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে আগামী ২৮, ২৯ ও ৩০ অক্টোবরের যে কোন একদিন রাষ্ট্রপতির কাছে সময় চাওয়া হয়েছে।

সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে নির্বাচনের প্রস্তুতি সর্ম্পকে অবহিত করতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদার (সিইসি) নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট কমিশন রাষ্ট্রপতির কাছে সময় চেয়েছেন।

ইসির এক কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চেয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। আগামী ২৮, ২৯ ও ৩০ অক্টোররের যে কোনো একদিন সময় চাওয়া হয়। তবে রাষ্ট্রপতি যে দিন সময় দেবেন সেদিনই কমিশন রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করবে।

ইসি সূত্র জানায়, সংবিধান অনুসারে আগামী ৩১ অক্টোবর থেকে ৩০ জানুয়ারি মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে। ফলে আগামী নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা করে ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে অথবা জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন করতে চায় কমিশন। তাই তফসিল ঘোষণার আগে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চাইছেন কমিশন।

সাধারণত সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে কমিশন। সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে সার্বিক প্রস্তুতি রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করেন নির্বাচন কমিশন। এসময় পাঁচ নির্বাচন কমিশনার উপস্থিত থাকেন।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার ৬ দিন আগে ২০১৩ সালের ১৯ নভেম্বর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাত করেছিল কাজী রকিব কমিশন।

এদিকে আগামী ১৫ অক্টোবর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে কমিশন সভা ডাকা হয়েছে। সভায় নির্বাচনের সার্বিক প্রস্তুতি ও অগ্রগতি কমিশনকে অবহিত করবে ইসি সচিবালয়।

১৫ অক্টোবর সোমবার সকাল ১১টায় রাজধানীর আগারগাঁও নির্বাচন কমিশন ভবনে এই সভা অনুষ্ঠিত হবে ইসি সূত্রে জানা গেছে।

ইসির ৩৬তম এই কমিশন সভায় তিনটি আলোচ্যসূচির মধ্যে প্রথমেই রাখা হয়েছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সর্বেশষ প্রস্তুতি বিষয়ে ইসি সচিবালয় থেকে কমিশনকে অবহিতকরণ। এ সভায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ চূড়ান্ত করা হতে পারে।

এর আগে ইসি সচিব হেল্লালুদ্দীন আহমদ জানান, আগামী ৩০ অক্টোবরের পর যেকোনো সময় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে।

তিনি বলেন, ৩০ অক্টোবরের পর কাউন্টডাউন শুরু হয়ে যাবে। ৩০ অক্টোবরের পর যে কোনো সময় নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা হতে পারে। জাতীয় নির্বাচন অনেক বড় একটি কাজ। আমি আগেও বলেছি তফসিল ঘোষণার আগে যে সব কাজ থাকে তার ৮০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। ৩০০ আসনের সীমানাপূর্ণ নির্ধারণের কাজও সম্পূর্ণ হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/এমআই/এমজি

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2