শিরোনাম:

জলবায়ু তহবিল পেতে এনডিএ ওয়েবসাইট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: 6:39 আপডেট: 6:54
জলবায়ু তহবিল পেতে এনডিএ ওয়েবসাইট

উন্নত দেশগুলো পরিবেশ দূষণ করছে। অন্যদিকে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশে। জলবায়ুগত কারণে যে পরিমাণে দেশের ক্ষতি হচ্ছে তার কোনও সহায়তা পাচ্ছে না বাংলাদেশ। ভবিষ্যতে বৈশ্বিক সবুজ জলবায়ু তহবিল থেকে অর্থায়ন পেতে হলে বাংলাদেশের জন্য স্বচ্ছ ও ব্যাপক অংশগ্রহণমূলক প্রক্রিয়ায় একটি জাতীয় ক্ষমতাপ্রাপ্ত সংস্থা বা ন্যাশনাল ডেজিগনেটেড অথোরিটি ( এনডিএ) তৈরি করা হয়। গুরুত্বপূর্ণ এই এনডিএ এর ওয়েবসাইট চালু করা হয়েছে। 
 
বৃহস্পতিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সিনিয়র সচিব কাজী শফিকুল আযম এ ওয়েবসাইটের উদ্বোধন করেন । 
 
এসময় তিনি বলেন, আজকে ভালো দিন, এনডিএ উদ্বোধন করা হল। আমরা জলবায়ুর নেতিগত প্রভাবের শিকার। আমাদের যে পরিমাণে ক্ষতি হচ্ছে তা পাচ্ছি না। আমরা ক্ষতিপূরণ পাওয়ার যোগ্য। আমাদের পাওয়ার অধিকার আছে। এনডিএ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সব কিছু আপডেট থাকবে। আমাদের কি প্রকল্প দরকার, চাহিদা কতো- সকল তথ্য ওয়েব সাইটে থাকবে। এর মাধ্যমে ক্লাইমেট চেঞ্জের সঠিক প্রাপ্য ক্ষতিপূরণ আমরা পাবো।
 
তিনি আরও বলেন, জলবায়ু তহবিলের অনেক প্রকল্প চলমান। এসব প্রকল্পের আপডেট তথ্য থাকবে ওয়েব সাইটে। এছাড়া আরও কি ধরনের প্রকল্প দরকার তা পেতে এই ওয়েবপেজের মাধ্যমে উন্নয়ন সহযোগীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে আমাদের প্রাপ্য হিস্যা পাবো। কয়েক দিন আগে বিশ্বব্যাংক রিপোর্টে প্রকাশ পেয়েছে জলবায়ুগত কারণে জিডিপির ৬ দশমিক ৭ শতাংশ ক্ষতি হচ্ছে। ১৩ কোটি মানুষ জলবায়ু প্রভাবের শিকার। নদী ভাঙ্গনে আমরা ক্ষতিগ্রস্থ। কিন্ত কোনও বৈশ্বিক সহযোগিতা পাচ্ছি না।
                
শফিকুল আযম বলেন, জাতীয় ক্ষমতাপ্রাপ্ত সংস্থাকে হতে হবে রাষ্ট্রীয় ও সাংবিধানিকভাবে ক্ষমতাপ্রাপ্ত, যাতে করে এই সংস্থা সকল আন্তঃমন্ত্রণালয়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় ও কার্যকর সমন্বয় সাধন করার ক্ষমতা রাখতে পারে।
 
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সবুজ জলবায়ু তহবিলের উপর বিশ্বব্যাংকের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এটা হলে জলবায়ু-তাড়িত স্বল্পোন্নাত দেশগুলোর স্বার্থ ব্যাহত হতে পারে। বৈশ্বিক সবুজ জলবায়ু তহবিল (জিসিএফ) থেকে অর্থায়ন পাওয়ার জন্য এনডিএ কোনও আমলাতান্ত্রিক বিষয় নয়। এটি জলবায়ু-তাড়িত জনগোষ্ঠী, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি, গণমাধ্যমের প্রতিনিধিসহ সকল স্তরের প্রতিনিধিদের যুক্ত করবে।
 
এনডিএ ওয়েবসাইট উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন ইআরডি'র সচিব আছিয়া খাতুন, জার্মান অ্যাম্বাসির ফার্স্ট সেক্রেটারি কারেন ব্লুম প্রমুখ।
 
ব্রেকিংনিউজ/এমআই/আরএ

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2