শিরোনাম:

নেত্রকোনায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায় প্রতিরোধ ছাত্রলীগের

জেলা প্রতিনিধি
২৬ আগস্ট ২০১৮, রবিবার
প্রকাশিত: 6:05 আপডেট: 6:11
নেত্রকোনায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায় প্রতিরোধ ছাত্রলীগের

নেত্রকোনা হতে ঢাকাগামী শাহজালাল পরিবহনের কাউন্টারে গিয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় প্রতিরোধ করেছে নেত্রকোনা জেলা ছাত্রলীগ।

রবিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়জুর মুর্শেদ খান অমির নেতৃত্বে একদল নেতাকর্মীর প্রতিরোধের মুখে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধ করতে বাধ্য হন পরিবহন ব্যবসায়ীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নেত্রকোনা সদরে প্রিয়জনের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে কর্মস্থলে ফেরা মানুষজনের পকেট কেটে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছিল পরিবহন ব্যবসায়ীরা। খবর পেয়ে ঢাকাগামী বাসস্ট্যান্ডে ছুটে যান জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়জুর মুর্শেদ খান অমি। 

এসময় সরকার নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করতে দেখে প্রতিবাদ জানান তিনি। তার সাথে থাকা নেতাকর্মীরাও প্রতিবাদ শুরু করেন। এসময় ছাত্রলীগের সাথে সাধারণ যাত্রীদেরও প্রতিবাদে অংশ নিতে দেখা যায়। প্রতিরোধের মুখে পরিবহন ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত ভাড়া কমাতে বাধ্য হন।

বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরিরত আলাউদ্দিন আহমেদ জানান, নেত্রকোনা থেকে ঢাকার ভাড়া হচ্ছে ২৫০ টাকা। কিন্তু শাহজালাল পরিবহন রাখছে ৫০০ টাকা। ছাত্রলীগের প্রতিবাদের মুখে এখন সঠিক ভাড়া রাখছে পরিবহন ব্যবসায়ীরা।

এরশাদ তালুকদার নামে অপর এক যাত্রী বলেন, ‘কাউন্টারে লাইনে দাঁড়িয়েছিলাম এক ঘণ্টা আগে। কিন্তু এই এক ঘণ্টায় এক ফুটও এগুতে পারি নাই। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আসার পর ১০ মিনিটের মধ্যেই ন্যায্যমূল্যে টিকিট পেয়ে যাই।’

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়জুর মুর্শেদ খান অমি বলেন, ‘ছাত্রলীগের প্রতিরোধের মুখে পরিবহন ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত ভাড়া আদয় বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে। সেই সাথে স্বজনপ্রীতি করে টিকিট বিক্রিও বন্ধ করেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, দেশরত্ন শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে নিরাপদ সড়কের নির্দেশনা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগেরও নির্দেশ রয়েছে। সেই নির্দেশনার আলোকেই আমাদের আজকের কর্মসূচি পালন করেছি। এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।’

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2