শিরোনাম:

গফরগাওয়ে শোক দিবসের কর্মসূচিতে আ.লীগের সংঘর্ষ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ময়মনসনিংহ
১৫ আগস্ট ২০১৮, বুধবার
প্রকাশিত: 8:33 আপডেট: 8:40
গফরগাওয়ে শোক দিবসের কর্মসূচিতে আ.লীগের সংঘর্ষ

ময়মনসিংহের গফরগাও উপজেলার পাগলা থানা এলাকায় আ.লীগের বর্তমান ও সাবেক এমপির সমর্থকদের মধ্যে জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি নিয়ে অস্ত্রসহ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এসময় চারজন আহত হয় বলে দাবি করে একটি পক্ষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

বুধবার (১৫ আগস্ট) সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার মশাখালী রেলওয়ে ষ্টেশন এলাকায় এই অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। পাগলা থানার ওসি মো: মোখলেছুর রহমান এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

এ বিষয়ে গফরগাওয়ের সাবেক আ.লীগের এমপি ক্যাপ্টেন অবঃ গিয়াস উদ্দিন আহামেদ জানান, তার সমর্থক উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক খোকন আহামেদ মশাখালী রেলষ্টেশনের পাশেই নিজ বাড়িতে কাঙালি ভোজ, কোরানখানি ও দোয়ার আয়োজন করে। কিন্তু বর্তমান এমপি ফাহমি গোলন্দাজ বাবেলের সমর্থক গফরগাও উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সালাহ উদ্দিন পলাশ দেশীয় ধারালো অস্ত্র লাঠিসোঠা নিয়ে সেখানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর মারধর এবং রান্না করা হাড়ির খিচুরি নষ্ট করে।

এ সময় চারজন (আশরাফুল, সেলিম, সজিব ও রুসমত) আহত হয় দাবি করে তিনি বলেন, ‘যারা এই কাজ করেছে তারা রাষ্ট্রদ্রোহিতা করেছে।’ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে দ্রুত বিচার আইনে মামলা ও জড়িতদের গ্রেফতার দাবি করেন আ.লীগের সাবেক এই এমপি।

এ বিষয়ে আ.লীগের বর্তমান এমপি ফাহমি গোলন্দাজ বাবেল ও তার এপিএস সোহেলকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তারা ফোন রিসিভ করেননি।

তবে বর্তমান এমপি ফাহমি গোলন্দাজ বাবেলের সমর্থক গফরগাও উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সালাহ উদ্দিন পলাশ জানান, ১৫ আগস্ট উপলক্ষে তারা মশাখালি ইউনিয়ন আ.লীগের উদ্যোগে মশাখালি রেলস্টেশন প্ল্যাটফরম মুক্তিযোদ্ধা অফিসের সামনে কাঙালি ভোজ, কোরানখানি ও দোয়ার  আয়োজন করেন। এ সময় পার্শ্ববর্তী এলাকায় আলাদা অনুষ্ঠানের আয়োজকদের এক সাথে অনুষ্ঠানের আহবান জানান, কিন্তু তারা আসেনি। গফরগাও আ.লীগে কোন কোন্দল নাই।

এ বিষয়ে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার আবিদ হোসেন বলেন, ‘আমরা বিষয়টি জেনে আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

ব্রেকিংনিউজ/এমআর/এসএএফ

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2