শিরোনাম:

বোরখা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে তদন্তের মুখে জনসন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৯ আগস্ট ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: 8:28
বোরখা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে তদন্তের মুখে জনসন<br />

বোরখা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য কনজারভেটিভ পার্টির আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে তাকে তদন্তের সম্মুখীন করা হচ্ছে। 

মুসলিম নারীদের শালীন পোশাক বোরখা সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেন তীব্র বিতর্কের জন্ম দেন জনসন। তার এই মন্তব্যের পর তার বিরুদ্ধে কয়েক ডজন অভিযোগ পেয়েছে দলটি।

একটি স্বাধীন প্যানেল দ্বারা তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগগুলি বিবেচনা করা হবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করার ক্ষমতা দেয়া হয়েছে এই প্যানেলকে।

তবে, তদন্তের ব্যাপারে বিস্তারিত মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানানো হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে।

এর আগে বোরকা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য কনজারভেটিভ পার্টির চেয়ারম্যান ও স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বরিসকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানালেও তিনি ক্ষমা চাইবেন না বলে জানিয়ে দেন।

বরিস জনসন তার মন্তব্যে বলেন, বোরকা পরা মুসলিম নারীদের ‘চিঠি ফেলার বাক্সের মতো লাগে’। তিনি নারীদের ‘ব্যাংক ডাকাতের’ সঙ্গেও তুলনা করেন।

ডেইলি টেলিগ্রাফের এক নিবন্ধে বরিস জনসনের এই মন্তব্য মুসলিম গোষ্ঠী, কনজারভেটিভ পার্টির কয়েকজন এমপি ও বিরোধী দলগুলোর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করে।

ওই নিবন্ধে বরিস জনসন আরও বলেছিলেন, বোরকা নিষিদ্ধ হওয়া উচিত নয়, কিন্তু এটাকে দেখতে ‘হাস্যকর’ লাগে।

কনজারভেটিভ মুসলিম ফোরাম বলেছে, এ ধরনের মন্তব্য সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করে। সূত্র: বিবিসি

ব্রেকিংনিউজ/আরএ

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
সর্বাধিক পঠিত
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2