Ads-Top-1
Ads-Top-2

আবারো কুয়েটে মাটির নিচে গুলি উদ্ধার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, খুলনা
১২ জুন ২০১৮, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: 10:05:00

কুয়েট ক্যাম্পাসের নবনির্মিত আইটি ট্রেনিং সেন্টারের রাস্তা নির্মাণ কাজের মাটির নিচ থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় আরো ৮১ রাউন্ড রাইফেলের গুলি উদ্ধার করেছে খানজহানা আলী থানা পুলিশ। এই নিয়ে গত দুইদিনে ডুমুরিয়া এবং খানজাহান আলী থানা পুলিশ মোট ৮৯০ রাউন্ড গুলি ও ১টি গ্রেনেড উদ্ধার করেছে।

মঙ্গলবার (১২ জুন) সকালে উৎসুক জনতা গুলি পাওয়া স্থানে গিয়ে আরো ৩০ রাউন্ড গুলি দেখে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে খবর দেয়। বিষয়টি কর্তৃপক্ষ থানা পুলিশকে অবহিত করলে খানজাহান আলী থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ আনিছুর রহমান সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে কুয়েট ক্যাম্পাসের পশ্চিম পাশে নবনির্মিত আইটি ট্রেনিং সেন্টারের রাস্তা নির্মাণ কাজে স্কেবেটার মেশিন দিয়ে তোলা ঐ স্থানের মাটি খুড়ে পরিত্যক্ত অবস্থায় আরো ৮১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে।



এর আগে সোমবার (১১ জুন) ডুমুরিয়ার থুকড়া গ্রামের দিনমুজুর সোহেল রানা ৮০৩ রাউন্ড গুলি ডুমুরিয়া বাজারে ভাঙ্গাড়ি দোকানে ওজনে বিক্রি করার সময় ডুমুরিয়া থানা পুলিশের হাতে আটক হয়। আটকের পর সোহেল পুলিশকে জানান সম্প্রতি আইটি ট্রেনিং সেন্টারের রাস্তার মাটির কাজ করার সময় গুলি গুলো পায় সে। টাকার লোভে কাউকে কিছু না বলে কেজি দরে গুলি গুলো বিক্রি করতে এসেছিল।

পরবর্তীতে তার দেয়া তথ্য মত ওই দিনই দুপুর সাড়ে ৩ টায় খানজাহান আলী থানা পুলিশসহ উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা কুয়েট ক্যাম্পাসের পশ্চিম পাশে নবনির্মিত আইটি ট্রেনিং সেন্টারের ওই স্থানে তল্লাশি চালিয়ে মাটির নিচে পরিত্যক্ত অবস্থায় সাড়ে ৭শ গ্রাম ওজনের ১টি গ্রেনেড ও ৬ রাউন্ড রাইফেলের গুলি উদ্ধার করে। মঙ্গলবার (১২ জুন) সকালে দ্বিতীয় দফায় একই স্থান থেকে আরো ৮১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ লিয়াকত আলী ব্রেকিংনিউজেকে বলেন, ‘ডুমুরিয়া বাজারের ভাঙ্গাড়ির দোকানে কেজি দরে বিক্রি করার সময় সোহেল রানাকে পুলিশ আটক করে। পরে ডুমুরিয়া থানা পুলিশের দেয়া তথ্য মতে উল্লেখিত স্থানে গত দু’দিনে দুই দফায় কোদাল দিয়ে মাটি কেটে পুলিশের অভিযানে ৮৭ রাউন্ড গুলি ও ১টি গ্রেনেড উদ্ধার করা হয়েছে।’

ব্রেকিংনিউজ/এসএএফ

Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
সর্বাধিক পঠিত
Ads-Sidebar-3
সর্বশেষ খবর
Ads-Sidebar-3
Ads-Top-1
Ads-Top-2