Ads-Top-1
Ads-Top-2

কে হচ্ছেন বার কাউন্সিলের ‘ভাইস চেয়ারম্যান’?

খাদেমুল ইসলাম
৩ জুন ২০১৮, রবিবার
প্রকাশিত: 09:05:00 আপডেট: 09:17:00

আইনজীবীদের সনদ প্রদান ও পেশাগত বিষয়ের সর্বোচ্চ সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিলে সদস্য সমাপ্ত নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছে সরকার সমর্থক আইনজীবীরা। নির্বাচিত ১৪টি পদের মধ্যে ১২টিতেই জয় পেয়েছেন তারা। সরকারি এই বিধিবদ্ধ সংস্থার চেয়ারম্যান থাকেন পদাধিকার বলে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল। আর নির্বাচিত সদস্যদের সংখ্যাগরিষ্ঠের ভোটেই হয়ে থাকেন ভাইস চেয়ারম্যান।

বাংলাদেশ লিগ্যাল প্র্যাকটিশনার্স অ্যান্ড বার কাউন্সিল অর্ডার ১৯৭২ অনুসারে নির্বাচনের ফলাফল এখন গেজেটে প্রকাশ করা হবে। গেজেটের ৩০ দিনের মধ্যে অ্যাটর্নি জেনারেল নবনির্বাচিত কমিটির প্রথম সভা আহবান করবেন। সেই সভাতেই নির্বাচিত সদস্যরা ভোটের মাধ্যমে তাদের মধ্য থেকে একজনকে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবেন।

এখন স্বাভাবিকভাবে সরকারপন্থিদের মধ্য থেকেই একজন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন। আপাতত সরকারপন্থিদের মধ্যে এই পদের জন্য আলোচনায় আছেন তিন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী। তারা হল, বার কাউন্সিলের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আব্দুল বাসেত মজুমদার, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ও সৈয়দ রেজাউর রহমান।

তবে এ তিন জনের মধ্যে আইনজীবী মহলে জনপ্রিয়তার দিক থেকে এগিয়ে আব্দুল বাসেত মজুমদার। তিনি এবারসহ পরপর দু’বার সাধারণ আসনে সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন। সবশেষ ২০১৫ সালে আরেক জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ব্যারিস্টার এম. আমীর-উল ইসলাম এর নেতৃত্বে আওয়ামীপন্থি প্যানেল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছিল। তবে সর্বোচ্চ ভোট পাওয়ায় তখন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তে আব্দুল বাসেত মজুমদারকে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করা হয়।

এবার আব্দুল বাসেত মজুমদারের নেতৃত্বেই আওয়ামীপন্থিরা আরও বড় রকমের সাফল্য লাভ করে। একইভাবে এবারও সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন ‘গরিবের আইনজীবী’ হিসেবে পরিচিত এই বাসেত মজুমদার। তাই স্বাভাবিকভাবে এবারও ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী তিনি।

বাসেত মজুমদার দ্বিতীয়বারের মত ভাইস চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব পালন করছেন। এবার নির্বাচিত হলে তৃতীয়বারের মত আইনজীবীদের শীর্ষ এই সংগঠনের নির্বাচিত সর্বোচ্চ পদে আসীন হবেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হওয়ার ব্যাপারে এবার কতটা আশাবাদী জানতে চাইলে আব্দুল বাসেত মজুমদার বলেন, ‘আমি টানা দ্বিতীয়বার আইনজীবীদের সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছি। যা এর আগে কারও ক্ষেত্রে হয়নি। তাই স্বাভাবিকভাবেই আামি এবারও ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনীত করবেন বলে আমি আশাবাদী।’

তিনি আরও বলেন, ‘সবসময় আইনজীবীদের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। যতটা সম্ভব সব বার অ্যাসোসিয়েশনে আর্থিক অনুদানও প্রদান করেছি। তাই সাধারণ আইনজীবীদেরও এটা প্রত্যাশা যে আমাকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত করা হোক।’

আওয়ামী প্যানেল থেকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে আরেকজন সদস্য জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় প্রধান প্রসিকিউটর সৈয়দ রেজাউর রহমানের নামও শুনা যাচ্ছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখনো পূর্ববর্তী কমিটির মেয়াদ পূর্ণ হয়নি। ইতোমধ্যে গেজেট প্রকাশ পাবে। তারপর বৈঠক আহবান করে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। এ বিষয়ে আমরা কোনও সিদ্ধান্ত নেইনি।’

আওয়ামীপন্থি প্যানেল থেকে সাধারণ আসনে নির্বাচিত সদস্য ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর মো: মোখলেসুর রহমান বাদল এ বিষয়ে বলেন, ‘২১ জুন পর্যন্ত বর্তমান কমিটির মেয়াদ আছে। এই মেয়াদ শেষ হওয়ার পর গেজেট জারি ও ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচন। ভাইস চেয়ারম্যান কে হবেন তা দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই নির্ধারণ করবেন।’

তিন বছর মেয়াদের কমিটিতে গত ১৪ মে বার কাউন্সিলের নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। গত ২৬ মে সেই ভোটের আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করা হয়। যাতে নির্বাচিত ১৪টি পদের মধ্যে ১২টিতেই সরকারপন্থিরা বিজয়ী হয়। বাকি দুটি পেয়েছে বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা।

ব্রেকিংনিউজ/এসএএফ

Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
Ads-Top-1
Ads-Top-2