শিরোনাম:

নির্বাচন, খালেদা জিয়া, কুকুর ও বাতিল সাংবাদিকতা

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক
৬ মে ২০১৮, রবিবার
প্রকাশিত: 12:14
নির্বাচন, খালেদা জিয়া, কুকুর ও বাতিল সাংবাদিকতা

রাত বারেটায় সিগারেটের পরিচিত দোকানি জিজ্ঞাসা করলেন, ‘সামবাদিক ভাই, ইলেকশন কি হইব?’
আমি বললাম, ‘হওয়ার তো কথা।’
‘খালেদা জিয়ারে কি খাড়াইতে দিব?’
‘তা আমি কী করে বলব?’
‘আপনে সামবাদিক, আপনেই জানেন না?’
‘সাংবাদিকেরা কিচ্ছু জানে না।’
‘মশকারি কইরেন না ভাই। খালেদা জিয়ারে বাদ দিয়া ইলেকশন হইলে কিন্তু ইলেকশনই হইব না। হইব শইরাচার।’
 
আমার মনে পড়ল আমাদের প্রবল তারুণ্যের দিনগুলোর কথা: স্বৈরাচার নিপাত যাক, গণতন্ত্র মুক্তি পাক। মনে পড়ল কমরেড তাজুল ইসলামকে, রাউফুন বসুনিয়াকে, মনে পড়ল নূর হোসনকে।
 
দোকানি বললেন, ‘সামবাদিক ভাই, আপনে আপনের পেপারে লেইখ্যা দান, খালেদা জিয়ারে বাদ দিয়া ইলেকশন হইলে গ্রহণযোগ্য হইব না। কেউ মানব না।’
 
আমি বিড়বিড় করে বললাম: গ্রহণযোগ্য নির্বাচন! গ্রহণযোগ্য, গ্রহণযোগ্য!!
দোকানি বললেন, ‘কী ভাই, কতা কন না ক্যা?’
আমি বিড় বিড় করে বললাম: ‘অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন! গ্রহণযোগ্য নির্বাচন! গ্রহণযোগ্য, গ্রহণযোগ্য, গ্রহণযোগ্য।’
দোকানি বললেন: ‘ভাই সায়েব, আপনে কি বুঝতে পারতেছেন, আমি কী কইতেছি?’
‘না, বুঝতে পারতেছি না।’
‘আপনে তো দেখা যায় সামবাদিক না, হাসিনার দালাল। আপনেরা বাতিল।’
বাংলা মোটরের মোড়ে সমস্বরে ঘেউ ঘেউ করে উঠল অনেকগুলো কুকুর।
আমি তাদের উদ্দেশে চিৎকার করে বললাম: শাট আপ!
কুকুরের দল আমাকে নিয়ে হাসাহাসি শুরু করে দিল।

মশিউল আলমের ফেসবুক থেকে
 
ব্রেকিংনিউজ/ আরএস

Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
সর্বাধিক পঠিত
Ads-Sidebar-1
Ads-Sidebar-1
Ads-Bottom-1
Ads-Bottom-2