শিরোনাম:
Ads-Top-1
Ads-Top-2

প্রবাসীদের অনেক সমর্থন পেয়েছি: মান্ডা

​সুলতান মাহমুদ রিপন
৩ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: 08:18:00 আপডেট: 04:16:00

স্বাগতিক হংকংকে (৬-০) গোলে উড়িয়ে দিয়ে চার জাতি জকি আমন্ত্রণমূলক অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল টুর্নামেন্টে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ। এএফসি ও সাফের বাইরে এই প্রথম কোনো টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতে সোমবার রাতে দেশে ফিরেছেন বাংলাদেশের গর্বিত মেয়েরা।
 
তবে এই টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতার ব্যাপারে দারুণ আত্মবিশ্বাসী ছিলেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল দলের অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা। হংকংয়ে অনুষ্ঠিত এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ দলকে ভালো খেলতে অনেক সমর্থন যুগিয়েছেন প্রবাসীরা বলে জানিয়েছেন তিনি।
 
মালয়েশিয়া, ইরান ও স্বাগতিক হংকংককে বিধ্বস্ত করে টুর্নামেন্টে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ। এর আগে দুইবার বাংলাদেশের মেয়েরা দেশে ফিরেছিল বিজয়ের পতাকা উড়িয়ে। ২০১৫ সালে নেপাল ও পরের বছর তাজিকিস্তান থেকে বাংলাদেশের মেয়েরা ফিরেছিল এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়ন হয়ে। বাংলাদেশের মেয়েদের ভালো খেলার ধারাবাহিকতা দেখে  প্রতিপক্ষের কোচরা বেশ ভড়কে যাচ্ছেন।  অধিনায়ক মারিয়া মান্ডার সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন ব্রেকিংনিউজের স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট সুলতান মাহমুদ রিপন
 
ব্রেকিংনিউজ: গত ডিসেম্বরে ঘরের মাঠে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল টুর্নামেন্টে। আর দেশের বাইরে গিয়েও বাংলাদেশের মেয়েদের ধারাবাহিক এতো ভালো খেলার কারণটা জানাবেন?
মারিয়া মান্ডা: হংকংয়ে আমরা অনেক সমর্থন পেয়েছি। সেখানে প্রবাসী বাংলাদেশীরা আমাদের খেলা দেখতে মাঠে এসেছিলেন। আমাদের খেলা দেখে তারা অনেক মুগ্ধ হন। দেশের জন্য কিছু করতে পেরেছি, এটা ভেবেই বেশি আনন্দ পাচ্ছি।
 
ব্রেকিংনিউজ: চার জাতি জকি আমন্ত্রণমূলক অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রথম দুই ম্যাচে প্রতিপক্ষকে বাংলাদেশ গোলবন্যায় ভাসিয়েছিল। এরপর গ্রুপের পর্বের শেষ ম্যাচে স্বাগতিক হংকংয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ব্যাপারে কতটুকু আশবাদী ছিলেন?
মারিয়া মান্ডা: আমাদের সবার অনেক আত্মবিশ্বাস ছিল যে আমরা পারব। কারণ সাফের পর আমরা একটানা অনুশীলন করেছি। সিনিয়রদের সঙ্গে ম্যাচ খেলেছি। হংকংয়ে গিয়ে ইরান, মালয়েশিয়ার মতো দলকে হারানোর পর শেষ ম্যাচে আমরা আরও আত্মবিশ্বাসী ছিলাম।’

 
ব্রেকিংনিউজ: স্বাগতিক হংকংয়ের সঙ্গে হারলে তো শিরোপা হাতছাড়া হয়ে যেত। তারপরও বাংলাদেশ দলের আত্মবিশ্বাসের কারণটা জানাবেন?
মারিয়া মান্ডা: ভয়টা ছিল হংকং স্বাগতিক দল, তারপর তারা দর্শকদের কাছ থেকে অনেক সমর্থন পাবে। তাদের দর্শকরা এসেছিলো। তবে আমরাও অনেক সমর্থন পেয়েছি। শেষ পর্যন্ত শেষ খেলায়ও সেরাটা মেলে ধরতে পেরেছি। ভাল খেলতে পেরেছি বলেই আমরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছি।
 
ব্রেকিংনিউজ: বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ দলের সামনের লক্ষ্য কি?
মারিয়া মান্ডা: সামনে আরও ভাল করতে চাই। থাইল্যান্ডে ফুটসাল টুর্নামেন্ট আছে, সেখানেও ভাল কিছু করার চেষ্টা করব।
 
ব্রেকিংনিউজ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট হচ্ছে। আর ওই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে দেশে মেয়েদের ফুটবল দিন দিন আরও এগিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে আপনি যদি কিছু বলেন?
মারিয়া মান্ডা: অবশ্যই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট থেকে অনেক ভালো মানের মেয়ে ফুটবলার বের হয়ে এসেছে। এই টুর্নামেন্ট চালু থাকলে আগামীতে আরও ভালো মানের ফুটবল বের হয়ে আসবে বলে আমি বিশ্বাস করি।
 
ব্রেকিংনিউজ/এসএম

Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
সর্বশেষ খবর
Ads-Sidebar-3
Ads-Top-1
Ads-Top-2