Ads-Top-1
Ads-Top-2

ঝালকাঠিতে সরিষার বাম্পান ফলনের হাতছানি

ঝালকাঠি প্রতিনিধি
১১ জানুয়ারি ২০১৮, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: 02:14:00 আপডেট: 06:02:47
ঝালকাঠিতে সরিষার বাম্পান ফলনের হাতছানি<br />

ঝালকাঠির দিগন্তজোড়া মাঠগুলোতে সরিষার ফুল নজর কেড়েছে সবার। এবছর সরিষার বাম্পার ফলনের হাতছানি দেখা দেয়ায় কৃষকের মুখে হাসি ফোটেছে।
 
হলদে রঙের ফুলে মৌ মাছির গুন গুন শব্দ শুনতে ভাল লাগে সবার । কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে জেলার চার উপজেলার ৪৭৫ হেক্টর জমিতে এ বছর সরিষার চাষ হয়েছে। এর মধ্যে ঝালকাঠি সদর উপজেলায় ২০০ হেক্টর, নলছিটিতে ১৭৫ হেক্টর, রাজাপুরে ৫০ হেক্টর ও কাঠালিয়ায় ৫০ হেক্টর জমিতে সরিষার চাষ হয়েছে।
 
আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ফল ভাল হবার সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যে সরিষার ক্ষেতে ফুল ফুটেছে। সড়ক মহাসড়কের পাশ থেকে চলাচলের সময় মাঠের মাঝ খানে থাকা সরিষার ক্ষেত সকলে দৃষ্টি কাড়ে।
 
অনেকে আবার সরিষা ক্ষেতের পাশে দাঁড়িয়ে ছবি তুলতে পছন্দ করেন। নভেম্বর মাসের শুরুতে সরিসার চাষ শুরু হয়। ফলন পাকতে প্রায় তিন মাস সময় লাগে। এখন মাঝা মাঝি সময়। ধান বা অন্য ফসলের তুলনায় লাভ জনক হওয়ায় কৃষকরা দিন দিন সরিষা চাষের দিকে ঝুঁকছে।
 
উঁচু জমি সরিষা চাষের জন্য উপযুক্ত। প্রথমে হালকা ভাবে চাষাবাদ করে সরিষার বীজ বপন করতে হয়। এর পরে দু’এক বার সামান্য ঔষধ ও কীটনাশক দিলেই সহজে ফলন ভাল হয়।
 
তুলনামূলক কম পরিশ্রমে অধিক লাভ হওয়ায় এই অঞ্চলের কৃষকরা দিন দিন সরিষা চাষে আগ্রহ প্রকাশ করছে। ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার বারইকরণ গ্রামের কৃষক হেলাল হাওলাদার বলেন, ‘আমরা এক একর জমিতে সরিষার চাষ করেছি। ক্ষেতে ফুল ফুটেছে। আসা করছি ফলন ভাল হবে। সরিষায় ধানের চেয়ে বেশি লাভ।’
 
ঝালকাঠি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. শাহজালাল বলেন, ‘আমরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে কৃষকদেরকে বীজ ও সার সরবরাহ করেছি। পাশাপাশি কৃষকদেরকে নিয়মিত পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি ‘
  
ব্রেকিংনিউজ/আমিনুল/জিসা
 

Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
Ads-Top-1
Ads-Top-2