শিরোনাম:

হাতীবান্ধায় অবরুদ্ধ করে শিশুকে নির্যাতন

জেলা প্রতিনিধি, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
প্রকাশিত : সোমবার, ১৯ জুন ২০১৭, ০৮:২২
অ-অ+
হাতীবান্ধায় অবরুদ্ধ করে শিশুকে নির্যাতন
প্রতীকী ছবি

লালমনিরহাট: জেলার হাতীবান্ধায় হাদিত (১১) নামে এক শিশুকে চুরির দায়ে কক্ষে অবরুদ্ধ করে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার (১৯ জুন) বিকেলে তার অবস্থান জানতে গেলে সাংবাদিকদের ক্যামেরাও কেড়ে নেন অভিযুক্ত লাদেন ও তার লোকজন। 

অভিযুক্ত লুৎফর রহমান লাদেন সিংগিমারী ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক। 

অবরুদ্ধ শিশু হাদিত উপজেলার দক্ষিণ গড্ডিমারী গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে। সে হাতীবান্ধা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্র।

হাদিতের পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, সকালে নিজ বাড়ির উঠানে পাড়ার শিশুদের সাথে খেলছিল হাদিত। এ সময় তাকে প্রতিবেশী লন্ডন প্রবাসী আব্দুল গণির বাড়িতে ডেকে নেন লাদেন।

এরপর ওই বাড়ির একটি কক্ষে অবরুদ্ধ করে শিশু হাদিতকে অমানুষিক নির্যাতন করে কক্ষে আটকিয়ে রাখেন। এমন একটি খবরে স্থানীয় সংবাদকর্মীরা বিকেলে ছুটে গেলে তাদেরকে ভিতরে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। এ সময় সাংবাদিকরা ওই বাড়ির ছবি তুলতে গেলে ক্যামেরা কেড়ে নেন গণির ছোট ভাই কাইয়ুম। পরে ছবি না তোলার শর্তে ক্যামেরা নিয়ে চলে আসেন সাংবাদিকরা। 

এরপর সিঙ্গিমারী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মানোয়ার হোসেন দুলু গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে শিশুটিকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করান।

শিশু হাদিতের মা জাহানারা বেগম জানান, সকালে তার ছেলেকে অমানুষিক নির্যাতন করে একটি কক্ষে আটকিয়ে রাখে। থানা অভিযোগ দিলে শিশু হাদিতকে হত্যার করার হুমকি দিচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি। 

এ ব্যাপারে সিংগীমারী ইউপি চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন দুলু জানান, ঘটনার বিস্তারিত জানতে ইতোমধ্যে ঘটনাস্থলে গ্রাম পুলিশ দিয়ে শিশুটি উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রেজাউল করিম জানান, বিষয়টি লোকমুখে শুনেছি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/ এআর