Ads-Top-1
Ads-Top-2

সিলেটে সাফল্য ধরে রেখেছে ছেলেরা

আব্দুল্লাহ আল নোমান, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি
৪ মে ২০১৭, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: 03:37:00 আপডেট: 12:00:00
সিলেটে সাফল্য ধরে রেখেছে ছেলেরা
ফাইল ছবি

সিলেট: সিলেট শিক্ষা বোর্ডে সাফল্যের ধারা ধরে রেখেছে ছেলেরা। এসএসসির সার্বিক ফলাফলে গত পাঁচ বছর ধরে শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রেখেছে তারা। এবারের ফলাফলেও মেয়েদের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে ছেলেরা। এবছর সিলেটে পাসের হার ৮০ দশমিক ২৬ শতাংশ। এর মধ্যে ছেলেদের পাসের হার ৮০ দশমিক ৮৫। মেয়েদের পাসের হার ৭৯ দশমিক ৭৯।
 
বৃহস্পতিবার (৪ মে) প্রকাশিত ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা গেছে, এবার দেশের ৮টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডের মধ্যে সিলেটের অবস্থান পঞ্চম স্থানে রয়েছে। পাসের হার গতবারের চেয়ে কমলেও বেড়েছে জিপিএ-৫। এবছর জিপিএ-৫ পেয়েছে মোট ২ হাজার ৬৬৩ জন শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে ছেলে ১৪শ’ ২৭ ও মেয়ে ১২শ’ ৩৬জন।
 
যা গতবারের তুলনায় ৩৯৭টি বেশি। গতবার জিপিএ-৫ পায় ২ হাজার ২৬৬ জন পরীক্ষার্থী। জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ২ হাজার ৫শ’ ৫০ জন, মানবিক বিভাগ থেকে ৫৭ জন এবং ব্যবসা শিক্ষা থেকে ৫৬ জন। জিপিএ-৫ এর দিক দিয়েও বিজ্ঞান বিভাগে ছেলেরা এগিয়ে থাকলেও পিছিয়ে মানবিক ও ব্যবসায়।
 
এদিকে, বিজ্ঞান বিভাগে ১৮ হাজার ৭শ’ ২৮জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ১৭ হাজার ২৭ জন। পাসের হার ৯০ দশমিক ৯২ ভাগ। এ বিভাগে ৯ হাজার ৮শ’ ০৪ জন ছেলের মধ্যে পাস করেছে ৮ হাজার ৯শ’ ৭৭ জন। পাসের হার ৯১ দশমিক ৫৬।
 
অন্যদিকে ৮ হাজার ৯শ’ ২৪ জন মেয়ের মধ্যে পাস করেছে ৮ হাজার ৫০ জন। তাদের পাসের হার ৯০ দশমিক ২১। এই বিভাগে ২হাজার ৫শ’ ৫০টি জিপিএ-৫ এর মধ্যে ছেলেরা পেয়েছে ১হাজার ৩শ’ ৯৩টি ও মেয়েরা পেয়েছে ১ হাজার ১শ’ ৫৭টি।
 
মানবিক বিভাগে ৬৫ হাজার ৭শ’ ৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৪৯হাজার ৯শ’১৩ জন। পাসের হার ৭৫ দশমিক ৯৭ ভাগ। এ বিভাগে ২৬ হাজার ৪শ’ জন ছেলের মধ্যে পাস করেছে ১৯ হাজার ৮শ’ ৫৬ জন। পাসের হার ৭৫ দশমিক ২১।
 
অন্যদিকে ৩৯ হাজার ৩শ’ ০৪ জন মেয়ের মধ্যে পাস করেছে ৩০ হাজার ৫৭ জন। তাদের পাসের হার ৭৬ দশমিক ৪৭। এই বিভাগে ৫৭টি জিপিএ-৫ এর মধ্যে ছেলেরা পেয়েছে ১১টি ও মেয়েরা পেয়েছে ৪৬টি।
 
বাণিজ্য বিভাগে ৯ হাজার ৪শ’ ৮৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৮ হাজার ৪শ’ ৪৩ জন। পাসের হার ৮৮ দশমিক ৯৪ ভাগ। এ বিভাগে ৫ হাজার ৪শ’ ২২ জন ছেলের মধ্যে পাস করেছে ৪ হাজার ৮শ’ ২২ জন। পাসের হার ৮৮ দশমিক ৯৩।
 
অন্যদিকে ৪ হাজার ৬১ জন মেয়ের মধ্যে পাস করেছে ৩ হাজার ৬শ’ ১২ জন। তাদের পাসের হার ৮৮ দশমিক ৯৪। এই বিভাগে ৫৬টি জিপিএ-৫ এর মধ্যে ছেলেরা পেয়েছে ২৩টি ও মেয়েরা পেয়েছে ৩৩টি।
 
এরআগে ২০১৬ সালের ফলাফলেও ছেলেরা এগিয়ে ছিল। মোট পাসের হার ছিল ৮৪ দশমিক ৭৭ শতাংশ। ওই বছর ছেলেদের পাসের হার ৮৫ দশমিক ৭৯ এবং মেয়েদের পাসের হার ৮৩ দশমিক ৯৫।

একইভাবে ২০১৫, ২০১৪-২০১৩ সালেও ছেলেরা এগিয়ে ছিল। ২০১৫ সালে সিলেটে মোট পাসের হার ছিল ৮১ দশমিক ৮২। এর মধ্যে ছেলেদের পাসের হার ৮৩ দশমিক ০২। মেয়েদের পাসের হার ৮০ দশমিক ৭০।

২০১৪ সালে মোট পাসের হার ছিল ৮৯ দশমিক ২৩। এর মধ্যে ছেলেদের পাসের হার ৯০ দশমিক ৮০। মেয়েদের পাসের হার ৮৭ দশমিক ৯৭।
 
২০১৩ সালে মোট পাসের হার ছিল ৮৮ দশমিক ৯৬। এর মধ্যে ছেলেদের পাসের হার ৯০ দশমিক ৫৪। মেয়েদের পাসের হার ৮৭ দশমিক ৭০।
 
বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে সচিব মোস্তফা কামাল আহম আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করেন। এসময় ফলাফলে সন্তোষ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আইসিটি ও গণিতে ফলাফল খারাপ হওয়ার কারণেই এবার পরীক্ষার সার্বিক ফলাফলে পাসের হার কিছুটা কমেছে। তবে পাসের হার কমলেও এবার মেধাবীদের সংখ্যা বেড়েছে বলেও জানান তিনি।
 
ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/ এএএন/ এমএইচ

Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
Ads-Sidebar-3
Ads-Top-1
Ads-Top-2