রবিবার ৮ই জানুয়ারী ২০১৭ রাত ০৯:১৪:২১

আরও বিনিয়োগ বাড়াবে ইসলামী ব্যাংক: আরাস্ত্ত খান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি

আরও বিনিয়োগ বাড়াবে ইসলামী ব্যাংক: আরাস্ত্ত খান

ঢাকা: ইসলামী ব্যাংক আরও বিনিয়োগ বাড়াবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান আরাস্ত্ত খান। তিনি বলেছেন, ‘ইসলামী ব্যাংকের আমানত গ্রহণ, অর্থায়ন সেবা ও বিনিয়োগসহ সব কার্যক্রম শরিয়া মোতাবেক সুদবিহীন এবং লাভ-ক্ষতির ভিত্তিতেই পরিচালিত হবে। নিরাপদ ও কল্যাণমুখী খাতে এ ব্যাংকের বিনিয়োগ আরও সম্প্রসারণ করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘এ ব্যাংক শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ আর্তমানবতা ও দুস্থ জনগোষ্ঠীর সেবায় সিএসআর কার্যক্রম পরিচালনা করবে। গ্রাহকদের আমানত সংরক্ষণসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সুযোগ-সুবিধার প্রতি আরও বেশি মনোযোগ দেয়া হবে। ব্যাংকটির মূল যে উদ্দেশ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল, তার কোনো পরিবর্তন আসবে না।

বৃহস্পতিবার রাতে ইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান হওয়ার পর রবিবার প্রথম ব্যাংকে আসেন আরাস্তু খান। এ সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন।

আরাস্তু খান বলেন, ব্যাংক পরিচালনা ও ব্যবস্থাপনায় কিছু পরিবর্তন এসেছে। তবে ব্যাংকে যারা চাকরি করছেন, তারা নিরাপদ আছেন। সুনির্দিষ্ট অপরাধ ছাড়া কারও চাকরি যাবে না।

চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদত্যাগের পর বৃহস্পতিবার রাতেই নতুন নেতৃত্ব ঠিক করা হয়। এরপর রবিবার ব্যাংকটির দিলকুশার প্রধান কার্যালয়ের আশপাশে সকাল থেকেই মোতায়েন ছিল পুলিশ, র‍্যাব ও সাদাপোশাকের গোয়েন্দা পুলিশ।

বেলা ৩টায় এক সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন ব্যাংকটির চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ আহসানুল আলম ও নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) আবদুল মতিন।

মতবিনিময়কালে আরাস্ত্ত খান বলেন, দেশে-বিদেশে এই ব্যাংকের মডেল গত ৩৪ বছর ধরে শরিয়াভিত্তিক ব্যাংক স্থাপনের মাধ্যমে এর বাস্তবতা দৃশ্যমান হয়েছে। ব্যাংক পরিচালনার ক্ষেত্রে ইসলামী ব্যাংকিংয়ের মৌলিক নীতিমালা ও ইসলামী শরিয়ার সব বিধিবিধান কঠোরভাবে পরিপালন করা হবে। এ ক্ষেত্রে ইসলামী ব্যাংকের প্রাতিষ্ঠানিক লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সর্বদা অটুট রাখা হবে।

আপনি আরমাডা স্পিনিং মিলের পক্ষে পরিচালক হয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন। আরমাডার মালিক কারা—এ প্রশ্নের জবাবে আরাস্তু খান বলেন, বাংলাদেশে স্পিনিং খাতের চাহিদা বাড়ছে। ব্যবসাও ভালো। তবে প্রতিষ্ঠানটি কার তা বলতে পারেননি তিনি। এ প্রশ্নের জবাব পরে দেবেন বলে জানান আরাস্তু খান।

ব্যাংকটি এস আলম গ্রুপ কিনে ফেলেছে, গ্রুপটির চেয়ারম্যান সকালেই এসেছিলেন—এমন প্রশ্নের জবাব চেয়ারম্যান দেননি। ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ আহসানুল আলম বলেন, ‘গ্রুপটির ৫ ব্যাংকে শেয়ার আছে। আমি দায়িত্ব নিয়ে বলছি, ইসলামী ব্যাংকে তাদের কোনো শেয়ার নেই। একটি ব্যাংকের চেয়ারম্যান হিসেবে গ্রুপটির চেয়ারম্যান দলবল নিয়ে আমাদের চেয়ারম্যানকে ফুল দিয়ে গেছেন। এ ছাড়া অন্য কোনো সম্পর্ক নেই।’

ব্যাংকটির সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিলের অর্থায়ন নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের লোকেরা পেয়েছেন—এ প্রশ্নের জবাবে ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ আহসানুল আলম বলেন, সামাজিক দায়বদ্ধতার টাকা চোখ বন্ধ করে দেয়া হয়নি, চোখ খুলে দেয়া হয়েছে। ফলে নির্দিষ্ট কিছু মানুষ সুবিধা পেয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/এসআই

আপডেট: রবিবার ৮ই জানুয়ারী ২০১৭ রাত ০৯:১৪:২১