বৃহঃস্পতিবার ৫ই জানুয়ারী ২০১৭ সকাল ১০:৩৩:৩৬

স্মৃতি হারাতে পারেন রাস্তার পাশের বাসিন্দারা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ব্রেকিংনিউজি.কম.বিডি

স্মৃতি হারাতে পারেন রাস্তার পাশের বাসিন্দারা

ঢাকা: প্রধান প্রধান রাস্তার পাশের বাসিন্দারা স্মৃতি হারাতে পারেন বলে এক গবেষণায় জানিয়েছে ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নাল দ্য ল্যানসেন্ট।

গবেষণায় বলা হয়, মূল সড়কের ৫০ মিটারের মধ্যে বসবাসকারীদের ক্ষেত্রে স্মৃতিশক্তি হারানোর হার ১০ শতাংশ।

কানাডায় ১১ বছর ধরে প্রায় ২০ লাখ লোকের ওপর গবেষণা চালিয়ে এই তথ্য জানিয়েছেন গবেষকরা। গবেষণায় বলা হয়, বায়ু দূষণ ও ট্রাফিকের জ্যামকালে গাড়ির শব্দ দূষণের কারণে স্মৃতিশক্তি লোপ পাচ্ছে।

ব্রিটিশ বিশেষজ্ঞরা বলেন, এই বিষয়ে তথ্যগুলো আরো বেশি তদন্তের প্রয়োজন ছিল। কিন্তু যেই তথ্য পাওয়া গেছে তা অবশ্যই বিশ্বাসযোগ্য।

গবেষণায় বলা হয়, বিশ্বের প্রায় ৫০ মিলিয়ন লোক ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রংশ রোগে ভূগছেন।

তবে এই রোগের কারণ জানা যায়নি।

কানাডার অন্টারিও প্রদেশে ২০০১ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ২০ লাখ লোকের ওপর এই গবেষণা চালানো হয়। এই দীর্ঘ সময়ে দেশটিতে ২ লাখ ৪৩ হাজার ৬১১ জন ডিমেনশিয়া রোগী শনাক্ত হয়েছেন। রাস্তার পাশে বসবাসকারীরাই এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রধান ঝুঁকিতে আছেন।

গবেষণায় বলা হয়, যারা প্রধান সড়কের ৫০ মিটার দূরত্বের মধ্যে বাস করেন তাদের ডিমেনশিয়া রোগে ভোগার সম্ভাবনা ৭ শতাংশ বেশি। যারা ৫০-১০০ মিটারের মধ্যে বাস করেন তাদের ক্ষেত্রে এই সম্ভাবনা ৪ শতাংশ বেশি। যারা ১০১-২০০ মিটারের মধ্যে বাস করেন তাদের ক্ষেত্রে এই সম্ভাবনা ২ শতাংশ বেশি।

গবেষণায় বলা হয়, ট্রাফিকের কারণেই ৫০ মিটারের মধ্যে বসবাসকারী ৭-১১ শতাংশ লোক ডিমেনশিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন।

অন্টারিওর পাবলিক স্বাস্থ সংস্থার চিকিৎসক ডা. হং চেন বলেন, বর্ধিত জনসংখ্যা ও নগরায়নের কারণে ট্রাফিক জ্যামের সৃষ্টি হচ্ছে। আর এ থেকেই বাড়ছে ডিমেনশিয়ার ঝুঁকি।

গবেষকরা আরো বলেছেন, গোলমাল, ধূলিকণা, নাইট্রোজেন অক্সাইড এবং পাগড়ি পরিধান থেকে আসা ধুলোর কারণে ডিমেনশিয়া বাড়ছে।

ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি/ এসএইচ

আপডেট: বৃহঃস্পতিবার ৫ই জানুয়ারী ২০১৭ সকাল ১১:৩৪:৪৮