সোমবার ২রা জানুয়ারী ২০১৭ বিকাল ০৫:৪১:০৯

বিদেশি চ্যানেলে দেশি বিজ্ঞাপন প্রচারে নিষেধাজ্ঞা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি

বিদেশি চ্যানেলে দেশি বিজ্ঞাপন প্রচারে নিষেধাজ্ঞা

ঢাকা: বিদেশি টেলিভিশন চ্যানেলে দেশি পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার।

‘মিডিয়া ইউনিটি’ নামের নবগঠিত একটি সংগঠনের আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে সোমবার (০২ জানুয়ারি) এক তথ‌্য বিবরণীতে এই নিষেধাজ্ঞার কথা জানানো হয়।

এর আগে অননুমোদিত সব বিদেশি চ্যানেল দেশে প্রদর্শন নিষিদ্ধেরও দাবি জানিয়েছিল বাংলাদেশি টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর স্বার্থরক্ষায় গঠিত সংগঠনটি।

আজ তথ্য মন্ত্রণালয়ের আদেশে বলা হয়, কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক পরিচালনা আইন ২০০৬’ এর ধারা ১৯ এর ১৩ উপধারার আলোকে বাংলাদেশের দর্শকদের জন্য বাংলাদেশে ডাউনলিংককৃত বিদেশি টিভি চ্যানেলের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এই নির্দেশনা না মানলে সংশ্লিষ্ট বিদেশি টিভি চ্যানেল সম্প্রচারের অনাপত্তি ও অনুমতি এবং লাইসেন্স বাতিলসহ আইনানুযায়ী শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও সরকারি ভাষ্যে বলা হয়েছে।

সংগঠনটির দাবি, দেশে যেসব বিদেশি চ্যানেল দেখানো হচ্ছে, তার একটিরও অনুমোদন নেই। ডাউনলিংকের মাধ্যমে এগুলো অবাধে দেখানো হচ্ছে। এখন এগুলোয় বিজ্ঞাপন প্রচারের নামে মুদ্রা পাচার হচ্ছে। বিদেশি চ্যানেল বন্ধ করে বাঙালি সংস্কৃতি রক্ষায় এগিয়ে আসারও আহ্বান জানান তারা। বিদেশি পণ্যের বিজ্ঞাপন দেশেই নির্মাণের আইন প্রণয়ন ও বিদেশি বিজ্ঞাপন ডাবিং করে প্রচারে নিষেধাজ্ঞা চায় সংগঠনটি।

এ বিষয়ে এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান এক অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, ‘দেশি মিডিয়াগুলো এখন বিকশিত হচ্ছে। এ সময় যদি বাইরের কোনো মিডিয়ার চাপ আসে, তাহলে এগুলো বিকশিত হতে পারবে না।’

বিদেশি চ্যানেলে দেশি বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যমে দেশের টাকা ‘অবৈধভাবে’ বিদেশে ‘পাচার’ হয়ে যাচ্ছে অভিযোগ তুলে তা বন্ধের দাবিতে গত ৫ নভেম্বর আন্দোলন শুরু করে মিডিয়া ইউনিটি।

এরপর ২০ নভেম্বর তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু জানান, বিদেশি চ্যানেলে দেশি বিজ্ঞাপন প্রচারের বিষয়ে যাচাই করে ‘বাস্তবসম্মত’ পদক্ষেপ নেয়া হবে।

সোমবারের নিষেধাজ্ঞা হতে পারে সেই পদক্ষেপেরই অংশ।

ব্রেকিংনিউজ/ এমআর

আপডেট: সোমবার ২রা জানুয়ারী ২০১৭ বিকাল ০৫:৪১:০৯