কোনো কোম্পানি ট্যাক্সিক্যাব পরিচালনা করলে তাকে অবশ্যই বিআরটিএর মাধ্যমে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অনুমতি নিতে হবে। ভাড়ায় চালিত বা রেন্ট এ কার হিসেবে পরিচালিত মোটরকার ও মাইক্রোবাস পৃথক সিরিজে (প/ছ) রেজিস্ট্রেশন করতে হয়। এছাড়া মোটর বিধিমালা, ১৯৪০ এর বিধি ‘১৬২-এ’ মোতাবেক ভাড়ায় চালিত প্রতিটি মোটরকার ও মাইক্রেবাসের পৃথক রঙ (কালো বডি ও হলুদ টপ) থাকা এবং মোটরযান অধ্যাদেশ ১৯৮৩ এর ৫১ ধারা মোতাবেক প্রয়োজনীয় রুট পারমিট গ্রহণ বাধ্যতামূলক। অনলাইন ভিত্তিক ট্যাক্সি সার্ভিস সম্পূর্ণ অবৈধভাবে পরিচালিত হচ্ছে যা মোটরযান আইন ও বিধির পরিপন্থী।’

প্রকাশিত : শুক্রবার ২৫শে নভেম্বর ২০১৬ দুপুর ০২:১৪:৫৪

রাজধানীর পান্থপথে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ক্যাম্পাসে দুই দিনব্যাপী জাতীয় কম-টেক ফেস্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান এবং বিজয় বাংলা রূপকার বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান এমন আহ্বান জানান। বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুল মান্নান চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়টির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক এম নূরুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ মোরশেদ চৌধুরী, বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সাধারণ সম্পাদক মুশফিক এম চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। প্রযুক্তি জ্ঞানের প্রায়োগিক রূপান্তরে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা ভালো করছে জানিয়ে বক্তারা একনিষ্ঠভাবে দেশের সমস্যাগুলোর সমাধানে তাদের মনযোগী হওয়ার আহ্বান জানান।

প্রকাশিত : বৃহঃস্পতিবার ২৪শে নভেম্বর ২০১৬ বিকাল ০৫:৪৭:১৮

দেশের যুবসমাজকে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলে মোবাইল গেইমিং এবং বিশ্ব বাজারে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ আরও দৃঢ় করার মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখার লক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ‘জাতীয় পর্যায়ে মোবাইল গেইম উন্নয়ন কর্মসূচি’ গ্রহণ করেছে। প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে ১০ হাজার ডেভেলপার তৈরিসহ নানা ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার। এজন্য পূর্ণাঙ্গ অ্যাপস ডেভেলপার হিসেবে আট হাজার সাতশ’ পঞ্চাশ (৮,৭৫০) জনকে এবং গেইমিং অ্যানিমেটর হিসেবে দুই হাজার আটশত (২,৮০০) জনকে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। তারই ধারাবাহিকতায় দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়/শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২০টি কর্মশালার আয়োজন করা হবে।

প্রকাশিত : মঙ্গলবার ২২শে নভেম্বর ২০১৬ সন্ধ্যা ০৭:২৯:৫২

এ চুক্তির মাধ্যম মাইক্রোসফোটের প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে এনবিএল’র সক্ষমতা বৃদ্ধির সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছতে এবং ডিজিটাল রূপান্তরের দিকে তাদের এগিয়ে নিয়ে যেতে সহায়তা করবে বলে মনে করছে চুক্তির অংশীদার টেকওয়ান। চুক্তি নিয়ে এনবিএল’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (কারেন্ট চার্জ) চৌধুরী মোস্তাক আহমেদ বলেন, ‘মাইক্রোসফটের উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে আমরা ডিজিটাল সেবা চালু করার পরিকল্পনা করছি। নিরাপত্তা ও মেধাস্বত্ব রক্ষার ক্ষেত্রে এ চুক্তি কেবল আমাদের ব্যবসার প্রসারই ঘটাবে না বরং দেশে আমাদের ব্র্যান্ড ভ্যালুও বাড়বে। উক্ত প্রকল্প আমাদের কর্মক্ষেত্রের গতানুগতিক কর্মপদ্ধতিতে দক্ষতা বাড়াতে সহায়তা করবে।’

প্রকাশিত : সোমবার ২১শে নভেম্বর ২০১৬ রাত ০৯:১৯:০০

সাইবার ঝুঁকি একটি বৈশ্বিক সমস্যা। তাই এটি মোকাবেলায় অংশীজনের অংশগ্রহণে প্রযুক্তিক ও কারিগরি দক্ষতা বাড়ানোর পাশাপাশি সংবিধানের আলোকে আইন তৈরির মাধ্যমে এই জগতের অধিকার নিশ্চিত করা হবে। একই সঙ্গে সাইবার জগত সামরিকীকরণ না করার স্বার্থে আন্তর্জাতিক চুক্তি করতে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক ইন্টারনেট গভর্নেন্স ফোরামে দাবি তুলবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন, ‘আশা করছি ২০১৭ সালের প্রথম ৬ মাসের মধ্যে সাইবার জগতকে নিরাপদ রাখতে ২টি আইন পাস করা হবে। সংবিধানে বর্ণিত মানুষের অধিকার সমুন্বত রেখেই এই আইন করা হবে।’ ইনু আরও বলেন, ‘আইনগত ও প্রযুক্তিক এই দুই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলাই আজকে সাইবার জগতের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাড়িয়েছে। আর তা মোকাবেলায় ইন্টারনেট নামক কাঁচের ঘর পরিচ্ছন্ন রাখতে ইন্টারনেট ব্যবস্থাপনায় অংশীগ্রহণে সরকার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেবে।’

প্রকাশিত : রবিবার ২০শে নভেম্বর ২০১৬ রাত ১১:৪০:৩২